জমে উঠছে ই-কমার্সের বেচাকেনা, সতর্ক থাকার পরামর্শ সংশ্লিষ্টদের

|

প্রতীকী ছবি। ছবি: সংগৃহীত।

বেশ কিছু অনলাইন শপিং প্লেসের বিতর্কিত কর্মকাণ্ডের পর, গ্রাহকের আস্থার সংকটে ভুগছে ই-কমার্স। তবে ঈদ ঘিরে আবারও একটু একটু করে জমে উঠছে এ খাতের বাণিজ্য। কিন্তু এরই মধ্যে এক শ্রেণির প্রতারক উদ্যোক্তা সেজে ক্রেতাদের সাথে প্রতারণা করছে। এ নিয়ে বিস্তর অভিযোগ জমা পড়েছে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরে। প্রতারণার হাত থেকে বাঁচতে লোভনীয় অফার নয়, ডিজিটাল বিজনেস আইডেন্টিফিকেশন নম্বর দেখে কেনাকাটার পরামর্শ দিয়েছেন খাত সংশ্লিষ্টরা।

অনলাইন ভিত্তিক কেনা-কাটার প্লাটফর্ম ই-কমার্স এবং এফ-কমার্স এর জনপ্রিয়তা দিন দিন বাড়ছে। বিশেষ করে গত দুই বছরের করোনা পরিস্থিতিতে, ক্রেতা-বিক্রেতার মধ্যে সেতুবন্ধন হিসেবে কাজ করেছে এই ভার্চুয়াল শপিং প্লেসগুলো। আর এই সুযোগ কাজে লাগিয়ে, আইনের ফাঁক ফোকর দিয়ে প্রতারকরা অনলাইনে জেঁকে বসেছে বলে মনে করছেন খাত সংশ্লিষ্টরা।

অনলাইনে কেনাকাটা করে প্রতারণার শিকার হয়েছেন এমন হাজার হাজার গ্রাহকের অভিযোগ জমা পড়ছে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরে। এ অবস্থায় ক্রেতাকে আরও সতর্ক হওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন সংস্থাটির মহাপরিচালক এ এইচ এম সফিকুজ্জামান।

নতুন নীতিমালায় ই-কমার্স খাতে প্রতারণা ঠেকানো সম্ভব হবে বলে মনে করছে ই-কমার্স ব্যবসায়ীদের সংগঠন ই-ক্যাব। তবে ফেসবুক ভিত্তিক বিভিন্ন পেজ খুলে যারা ব্যবসা পরিচালনা করছেন, তাদের নিবন্ধন পরখ করে কেনাকাটা করার পরামর্শ দিচ্ছেন ই-ক্যাব নেতৃবৃন্দ।

অনলাইনে লোভনীয় অফার দেখে নয়, বরং এফ-কমার্সের ক্ষেত্রে ডিজিটাল বিজনেস আইডেন্টিফিকেশন এবং ই-ক্যাব ওয়েব সাইটে নিবন্ধিত প্রতিষ্ঠান দেখে কেনাকাটা করার কথা বলছেন খাত সংশ্লিষ্টরা।

এসজেড/





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply