‘আফ্রিদি মিথ্যাবাদী ও চরিত্রহীন, হিন্দু হওয়ায় তার ষড়যন্ত্রের শিকার হয়েছি’

|

ছবি: সংগৃহীত

পাকিস্তানের সাবেক অলরাউন্ডার শহীন আফ্রিদির বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ এনেছেন তারই সতীর্থ দানিশ কানেরিয়া। বলেছেন, শহীদ আফ্রিদি একজন মিথ্যাবাদী ও চরিত্রহীন মানুষ। একমাত্র হিন্দু খেলোয়াড় হয়েছি বলে পাকিস্তান দল থেকে আমাকে বের করে দেয়ার ষড়যন্ত্রও করেছে সে। এ নিয়ে প্রতিবেদন করেছে নিউজ এইটিন, ক্রিকট্র্যাকারসহ বিভিন্ন গণমাধ্যম।

এর আগেও পাকিস্তান দলে বাজে আচরণের শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ জানিয়েছিলেন দানিশ কানেরিয়া। আর এই অভিযোগে শোয়েব আখতারের সমর্থনও পেয়েছেন এই সাবেক এই লেগস্পিনার। নিউজ এইটিনের সাথে আলাপচারিতায় কানেরিয়া বলেন, আমি হিন্দু হওয়ায় আফ্রিদির বাজে আচরণের শিকার হয়েছি। প্রকাশ্যে এ ব্যাপারে প্রথম বলেছে শোয়েব। তাকে অভিবাদন জানাই। তবে এই নিয়ে কথা বলায় বেশ কিছু জায়গা থেকে চাপের মুখেও পড়তে হয়েছে শোয়েবকে। এরপর এ নিয়ে আর কথা বলেননি তিনি। তবে হ্যাঁ, আমার সাথে এমনটা ঘটেছে।

দানিশ কানেরিয়া আরও বলেন, শহীদ আফ্রিদির বাজে আচরণের শিকার আমি সব সময়ই হয়েছি। দুজনই লেগস্পিনার হওয়ায় একই ডিপার্টমেন্টেই খেলেছি আমরা। এ কারণে আমাকে প্রায় সময়ই বেঞ্চে বসে থাকতে হতো আর ওয়ানডে টুর্নামেন্টে আমাকে তো প্রায় খেলতেই দেয়নি সে।

টেস্টে ভালো পারফর্ম করায় আফ্রিদি তাকে ঈর্ষা করতেন বলে ধারণা কানেরিয়ার। তিনি বলেন, আফ্রিদি চাইতেন না আমি দলে থাকি। ডাহা মিথ্যা বলতো সে, বিভিন্নভাবে আমার বিরুদ্ধে সকলকে প্রভাবিত করার চেষ্টা করেছে। চরিত্রহীন মানুষ সে। শহীদ আফ্রিদিই একমাত্র খেলোয়াড় যে অন্যদের কাছে গিয়ে আমার বিরুদ্ধে কান ভারী করতো। আমি ভালো পারফর্ম করতাম বলে ঈর্ষা কাজ করতো তার মনে। তবে পাকিস্তানের হয়ে খেলতে পেরেছি বলে আমি কৃতজ্ঞ।

আরও পড়ুন: রোজায় মুসলিম খেলোয়াড়দের জন্য বিশেষ সুবিধা চালু করল লিভারপুল

/এম ই





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply