৩০ বছরের বেশি সময় ধরে শৌচাগারে খাবার তৈরি হতো এই সৌদি রেস্টুরেন্টে!

|

ছবি: সংগৃহীত

শৌচাগারে সিঙাড়া, সমুচাসহ বিভিন্ন খাবার তৈরির অভিযোগে জেদ্দার একটি আবাসিক এলাকার একটি রেস্টুরেন্ট বন্ধ করে দিয়েছে সেখানকার স্থানীয় প্রশাসন। জানা গেছে, জেদ্দা মিউনিসিপ্যালিটির একটি আবাসিক এলাকায় ৩০ বছরেরও বেশি সময় ধরে ব্যবসা করে আসছিল ওই রেস্টুরেন্টটি। খবর দ্য সিয়াসাত ডেইলির।

সোমবার (২৫ এপ্রিল) প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে সৌদি দৈনিক দ্য সিয়াসাত ডেইলি জানিয়েছে, গোপন সূত্রে খবর পেয়ে ওই রেস্টুরেন্টে অভিযান চালান জেদ্দা মিউনিসিপ্যালিটির কর্মকর্তারা। সেখানে তারা রান্নাঘরের পাশাপাশি টয়লেটেও বিভিন্ন খাবার করতে দেখেন। এসব খাবারের মধ্যে সিঙাড়া-সমুচার মতো জলখাবার থেকে শুরু করে ভাত-বিরিয়ানির মতো খাবারও ছিল।

এছাড়াও, রেস্টুরেন্টটি গরু, খাসি, ভেড়া, মুরগির মাংস ও পনির ক্রেতাদের জন্য রেখেছিল সেগুলোও জব্দ করা হয়। পরীক্ষা করে দেখা যায়, এসবের সবই মেয়াদোত্তীর্ণ। রেস্টুরেন্টটিতে দু’বছর আগে মেয়াদোত্তীর্ণ হওয়া খাবারও পাওয়া গেছে, যা ক্রেতাদের জন্য রাখা হয়েছিল।

অভিযান শেষে মিউনিসিপ্যালিটি কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, রেস্টুরেন্টটিতে যে কর্মীরা কাজ করতেন, তাদের কারোরই হেলথ কার্ড ছিল না। অথচ দেশটিতে স্থায়ীভাবে বসবাসকারী সবার জন্য স্বাস্থ্যকার্ড থাকা বাধ্যতামূলক।

প্রসঙ্গত, ২০২২ সালের জানুয়ারিতে দোকানের ভেতরে ইঁদুর দেখতে পাওয়ার পর বন্ধ করা হয় জেদ্দার একটি বিখ্যাত শর্মার দোকান।

/এসএইচ





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply