জাফর ইকবালকে হত্যা চেষ্টা মামলায় প্রধান আসামির যাবজ্জীবন

|

শিক্ষাবিদ ড. মুহম্মদ জাফর ইকবালকে হত্যা চেষ্টা মামলার রায়ে প্রধান আসামি ফয়জুল হাসানকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। আরেক আসামি সোহাগের ৪ বছরের কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে। খালাস পেয়েছেন ফয়জুলের বাবা, মা, ভাই ও মামা।

মঙ্গলবার (২৬ এপ্রিল) দুপুরে সিলেট বিভাগীয় সন্ত্রাসবিরোধী ট্রাইব্যুনাল এই রায় দেয়। যে সকল লেখক মুক্তবুদ্ধি, প্রগতিশীলতা, সমাজে প্রচলিত ধর্মীয় কুসংস্কার বিষয়ে লেখেন বা বক্তব্য রাখেন, তাদের মধ্যে ভীতি ও শঙ্কা ছড়িয়ে দেয়া— এ হামলার উদ্দেশ্য ছিল বলে আদালত তার পর্যবেক্ষণে বলেছেন।

রায়ের পর আসামিপক্ষের আইনজীবী জানিয়েছেন, সিলেট বিভাগীয় সন্ত্রাসবিরোধী ট্রাইব্যুনালের দেয়া রায়ের বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতে যাবেন তারা।

প্রসঙ্গত, ২০১৮ সালের ৩ মার্চ সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের মুক্তমঞ্চে একটি অনুষ্ঠান চলার সময় ড. জাফর ইকবালের ওপর ছুরি নিয়ে হামলা চালায় মাদরাসা ছাত্র ফয়জুল। ছাত্র-শিক্ষকরা ফয়জুলকে হাতেনাতে ধরে পুলিশে দেয়। মাথায় ও ঘাড়ে আঘাতপ্রাপ্ত জাফর ইকবালকে প্রথমে ওসমানী মেডিকেলে পরে ঢাকায় সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়। এ ঘটনায় দায়েরকৃত মামলা তদন্ত শেষে ৬ জনকে আসামি করে অভিযোগপত্র দেয় পুলিশ।

উল্লেখ্য, নিজের প্রিয় শিক্ষাঙ্গণে ড. মুহম্মদ জাফর ইকবালের ওপর হামলার ঘটনা স্তব্ধ করেছিল দেশবাসীকে। প্রতিবাদে সরব হন নানা শ্রেণি-পেশার মানুষ।

/এমএন





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply