পর্দা উঠলো ২৭তম কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের

|

শুরু হলো ২৭তম কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব।

অবশেষে পর্দা উঠলো ২৭ তম কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের। সোমবার (২৫ এপ্রিল) নজরুল মঞ্চে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উপস্থিতিতে মঙ্গল প্রদীপ জ্বালিয়ে শুরু হয় এ উৎসব। টলিউডের এক ঝাঁক তারকাদের সঙ্গে নিয়ে শুরু হলো সপ্তাহব্যাপী সিনেমার উদযাপন।

চলচ্চিত্র উৎসবের অনুষ্ঠান আগেই হওয়ার কথা থাকলেও করোনা মহামারির জন্য বার বার পিছিয়ে অবশেষে চলতি এপ্রিলে উৎসব আয়োজনের সিদ্ধান্ত নেয় পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকার। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে নজরুল মঞ্চে এবারের উৎসবের প্রথম সিনেমা হিসেবে প্রদর্শিত হয় সত্যজিৎ রায়ের ‘অরণ্যের দিনরাত্রি’। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের মঞ্চে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বলিউড তারকা শত্রুঘ্ন সিনহা। এছাড়াও ছিলেন পরিচালক গৌতম ঘোষ, সন্দীপ রায়, রাজ চক্রবর্তী, চলচ্চিত্র তারকা প্রসেনজিৎ, রঞ্জিত মল্লিকসহ টালিউডের আরও অনেক তারকা।


বাংলা সিনেমার জয়জয়কার বিশ্বজুড়ে। ২৭ তম কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বক্তব্যে উঠে এলো বাংলা সিনেমার গৌরবের কথাই। নিজের বক্তব্যে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা দিলেন কলকাতায় একটি চলচ্চিত্র জাদুঘর নির্মাণের। মমতা বলেন, বাংলা চলচ্চিত্রের জৌলুশ এখন দিনে দিনে বাড়ছে। বাংলা চলচ্চিত্র বিশ্ব সেরা। আর তাই বাংলা চলচ্চিত্র সংরক্ষণের জন্য কলকাতায় গড়ে তুলছি একটি চলচ্চিত্র জাদুঘর।

আর প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাংলা চলচ্চিত্রের সাথে নিজের দীর্ঘদিনের সম্পর্কের কথা উল্লেখ করে বলিউড অভিনেতা শত্রুঘ্ন সিনহা বলেন, আমার সঙ্গে বাংলার সম্পর্ক সুদূর অতীত থেকে। আমি সত্যজিৎ রায় ও মৃণাল সেনের ভক্ত। বাংলা চলচ্চিত্র আমাকে সবসময়ই অনুপ্রাণিত করেছে।

এই চলচ্চিত্র উৎসবে শতবর্ষ সম্মান জানানো হবে সত্যজিৎ রায়, চিদানন্দ দাসগুপ্ত এবং মিক্লস ইয়োঞ্চকে। এছাড়াও স্মরণ করা হবে বুদ্ধদেব দাশগুপ্ত, দিলীপ কুমার, জাঁ পল বেলমন্দো, জাঁ ক্লদ ক্যাসরিয়ের, স্বাতীলেখা সেনগুপ্তা, সুমিত্রা ভাভে, লতা মঙ্গেশকর, সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়, বাপ্পী লাহিড়ী ও অভিষেক চট্টোপাধ্যায়কে।

এ বছর উৎসবের থিম হলো- কান্ট্রি ফিনল্যান্ড। সেখানকার সাতটি সিনেমা প্রদর্শিত হবে উৎসবে। এদিকে, বাংলাদেশ থেকে উৎসবে যোগ দিয়েছে আজব কারখানা সিনেমাটি, পরিচালনা করেছেন শবনম ফেরদৌসী। মঙ্গলবার (২৬ এপ্রিল) সন্ধ্যায় নন্দনে সিনেমাটি প্রদর্শিত হবে উৎসবের নেটপ্যাক বিভাগে। এর সঙ্গে থাকছে সিনে আড্ডা, সেমিনার, সত্যজিৎ রায় মেমোরিয়াল লেকচার ও প্রদর্শনীর ব্যবস্থা।

প্রসঙ্গত, ১৯৯৫ সালে শুরু হওয়া এ উৎসব এবার ২৭ বছরে পা দিয়েছে। উৎসবে অংশ নিয়েছে ৪০টি দেশের ১৬৩টি সিনেমা। রয়েছে ১০৩টি ফিচার ফিল্ম এবং ৫৮টি স্বল্পদৈর্ঘ্যের সিনেমা। ৭১টি দেশের ১ হাজার ৬৯৮টি সিনেমা থেকে ১৬১টি বাছাই করা হয়েছে। এবারও উৎসবে দেয়া হবে সেরা সিনেমা, সেরা পরিচালক, সেরা স্বল্পদৈর্ঘ্যের সিনেমা এবং সেরা ডকুমেন্টারি সিনেমার পুরস্কার। সপ্তাহব্যাপী আয়োজিত এ চলচ্চিত্র উৎসব শেষ হবে ১ মে।

/এসএইচ





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply