গাইবান্ধার বোরো ধানে ব্লাস্ট রোগের আক্রমণ

|

গাইবান্ধার কয়েকটি উপজেলায় উঠতি বোরো ধানে ব্লাস্ট রোগের আক্রমণ দেখা দিয়েছে। ধান চিটা হয়ে যাওয়ায় ক্ষতির মুখে আনেক চাষি। কীটনাশক প্রয়োগেও সুফল মিলছে না বলে জানিয়েছেন তারা। ক্ষতি পোষাতে সহজ শর্তে ঋণ ও সরকারি প্রণোদনার দাবি কৃষকের।

কদিন বাদেই শুরু হবে ধান কাটা। শেষ মুহুর্তে জমিতে ব্লাস্টের আক্রমণে স্বপ্ন ভেঙেছে গাইবান্ধার অনেক চাষির। গোবিন্দগঞ্জ, সাঘাটাসহ কয়েকটি উপজেলায়, দেখা দিয়েছে ব্লাস্ট রোগ। চাষিরা বলছেন, কীটনাশক প্রয়োগ করেও সুফল মিলছে না।

কৃষি বিভাগ বলছে, কিছু জায়গায় শুধুমাত্র ব্রি ২৮ ও ২৯ জাতের ধানেই ব্লাস্ট রোগ দেখা দিয়েছে। আক্রান্ত জমিতে পানি ধরে রাখা, ছত্রাকনাশক প্রয়োগসহ চাষিদের বিভিন্ন পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে বলে জানালেন গাইবান্ধা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের সহকারী পরিচালক বেলাল হোসেন।

চলতি বছর গাইবান্ধা জেলায় ১ লাখ ২৮ হাজার হেক্টর জমিতে বোরো ধানের আবাদ হয়েছে। উৎপাদন লক্ষ্যমাত্রা ৫ লাখ ১৫ হাজার টন।

/এডব্লিউ





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply