বাস থেকে রিভলবারসহ ৪ যুবক আটক

|

গাইবান্ধা প্রতিনিধি
গাইবান্ধা গোবিন্দগঞ্জে নাবিল পরিবহনের একটি বাস থেকে গুলি ভর্তি একটি রিভালবার উদ্ধার করেছে পুলিশ। এসময় ৬টি মোবাইল সেট, নগদ ২৬ হাজার টাকাসহ চার যুবককে আটক করা হয়।

শনিবার (৫ মে) দুপুরে গাইবান্ধা পুলিশ সুপার কার্যালয়ে এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

এরআগে, শুক্রবার রাত ২টার দিকে গোপন খবরের ভিত্তিতে গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার দিনাজপুর-গোবিন্দগঞ্জ অঞ্চলিক মহাসড়কের কাটামাড় নামক এলাকায় দিনাজপুর থেকে আসা ঢাকা গামী নাবিল পরিবহনের বাসে তল্লাশী চালিয়ে রিভলবারসহ চারজনকে আটক করে গোবিন্দগঞ্জ থানা পুলিশ।

আটকরা হলেন, দিনাজপর জেলার বিরামপুর উপজেলা রনগাও গ্রামের মৃত সানোয়ার হোসেনের ছেলে কাওসার মিয়া (২৪), একই উপজেলার দাউদপুর গ্রামের জোলাপাড়ার আব্দুল খালেকের ছেলে তৌফিকুল ইসলাম (২৮), দছিমুদ্দিনের ছেলে হাবিবুর রহমান মানিক (২২) ও বগুড়া জেলা শাহজাহানপুর থানার খাদাস তালুকদারপাড়া গ্রামের আবুল হোসেনের ছেলে শ্যামল হোসেন প্রামণিক সেলিম (৩৪)।

প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে গাইবান্ধা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আব্দুল্লাহ আল ফারুক জানান, ভারত থেকে অবৈধভাবে আসা আমেরিকার তৈরী ৭.৬৫ বোরের (মউতোমাসি) মডেলের ৭ রাউন্ড গুলিসহ একটি রিভলবার নিয়ে আটক চার যুবক নাবিল পরিবহনে করে ঢাকায় যাচ্ছিলো। গোপন খবরে বাসে তল্লাশী চালিয়ে তাদের আটক করা হয়। এসময় তাদের কাছে বিভিন্ন কোম্পানির ৬টি মোবাইল সেট ও নগদ ২৬ হাজার টাকা উদ্ধার করা হয়।

তিনি বলেন, ‘আগামী দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দেশে অস্থিতিশীল পরিস্থিতি তৈরি করার লক্ষে এসব অস্ত্র দেশের সিমান্ত পথে এনে ঢাকায় বিভিন্ন অপরাধীর হাতে তুলে দিচ্ছেন। আটক চারজন রিভালবারটি ঢাকায় পৌঁছে দিতে তারা নাবিল পরিবহনে দিনাজপুর থেকে উঠেন। রিভলবারটি তারা ঢাকায় কোথায় কার কাছে নিয়ে যাচ্ছিলেন তা তদন্ত করা হচ্ছে। এছাড়া তারা এই রিভালবারটি কোথায় কিভাবে পেলেন এবং এর সাথে কারা জড়িত তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এ ঘটনায় আটকদের বিরুদ্ধে গোবিন্দগঞ্জ থানায় অস্ত্র আইনে মামলা হয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ শেষে তাদের আদালতে পাঠানো হয়েছে।

প্রেস বিজ্ঞপ্তির সময় সহকারি পুলিশ সুপার মইনুল হক, গোবিন্দগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মজিবুর রহমান পিপিএম, ডিবি’র ওসি একেএম মেহেদী হাসানসহ পুলিশের উর্দ্ধতন কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।









Leave a reply