টাঙ্গাইলে সাবেক সেনা সদস্য হত্যায় স্ত্রীসহ তিনজন গ্রেফতার

|

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি

টাঙ্গাইলের গোপালপুরে সাবেক সেনা সদস্য হত্যাকাণ্ডের মূল আসামি স্ত্রী রাজিয়া বেগমসহ তিনজনকে গ্রেফতার করেছে টাঙ্গাইল গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। আজ রবিবার বিকেলে টাঙ্গাইল পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে এ প্রেসবিফিং এর মাধ্যমে এ তথ্য জানানো হয়।

অপর দুই আসামিরা হলো টাঙ্গাইলের গোপালপুর উপজেলার বাসকাইল গোইজারপাড়া গ্রামের মো. হোসেন আলীর ছেলে সূজন ও মো. আব্দর রাজ্জাকের ছেলে মো আ. রহিম।

ডিবি পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অশোক কুমার সিংহ পিপএম (বার) বলেন, ২০১৬ সালে ১৭ আগষ্ট সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত সার্জেন্ট শামীম নিখোঁজ হয়। এরপর ২৮ আগষ্ট গোপালপুর উপজেলার বৈরান নদীর কচুরী পানার নীচ থেকে হা-পা বাধা অবস্থার তার লাশ উদ্ধার করা হয়। এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় শামীমের স্ত্রী রাজিয়া বেগম বাদী হয়ে একটি হত্যা মামলা দায়ের করে।

পরবর্তীতে তদন্ত করে জানা যায় শামীমের স্ত্রী রাজিয়া পরকিয়ায় জড়িয়ে পড়ে এবং পাওনাদারদের হাত থেকে বাঁচতে এ হত্যাকাণ্ড ঘটায়। এ হত্যার সাথে জড়িত অপর দুই আসামিকে ঢাকা জেলার সাভার হেমায়েতপুর এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়। পরে তাদের আদালতে প্রেরণ করা হয়।

পরে আসামিরা এ হত্যার সাথে জড়িত মর্মে আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেয় এবং তাদের জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়।

ডিবি ওসি আরো বলেন, মূল আসামি স্ত্রী রাজিয়া বেগমকে আদালতে প্রেরণ করে ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করা হবে আজকে।









Leave a reply