এবার বেপরোয়া ট্রাকের ধাক্কায় হাত হারালো শিশুকন্যা

|

বগুড়া ব্যুরো:
এবার বগুড়ায় ট্রাকের ধাক্কায় হাত হারালো ৭ বছরের এক শিশুকন্যা। রোববার বিকেলে জেলার শেরপুর উপজেলার শেরুয়া বটতলা এলাকায় বগুড়া-ঢাকা মহাসড়কে এই দুর্ঘটনা ঘটে।

দুর্ঘটনায় শিশুটির বাম হাত কনুইয়ের ওপর থেকে সম্পূর্ণ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে তার ডান হাতের কিছু অংশও। দুর্ঘটনার শিকার শিশু সুমী স্থানীয় ব্র্যাক স্কুলের শিশু শ্রেণির শিক্ষার্থী।

স্বজনরা জানান, বিকেলে মা মরিয়ম আকতারের সঙ্গে রাস্তা পারাপার হচ্ছিলো সুমী। আচমকা দ্রুত গতির একটি ট্রাক এসে পড়ায় আতঙ্কগ্রস্থ হয়ে পড়েন সুমীর বুদ্ধি প্রতিবন্ধী মা মরিয়ম আকতার। এসময় সুমী ভয়ে দৌড়ানোর চেষ্টা করলে ধাক্কা লাগে দ্রুতগ্রামী ট্রাকটির সঙ্গে।

এতে ঘটনাস্থলেই শরীর থেকে তার বাম হাতটি বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে। সন্ধ্যায় স্বজনরা তাকে নিয়ে আসেন বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে।
হাসপাতালের সার্জারি বিভাগের রেজিস্ট্রার ডা. মাহবুবুর রহমান জানান, দুই হাত ছাড়াও ট্রাকের ধাক্কায় শরীরের আরও বেশ কিছু স্থানে আঘাত পেয়েছে সুমী। ডান হাতেরও খানিকটা আঘাতপ্রাপ্ত হয়েছে, আঘাত পেয়েছে মাথাতেও। তার শারীরিক অবস্থা এখনো আশঙ্কামুক্ত নয় বলে জানিয়েছেন এই চিকিৎসক।

সঙ্গে থাকা স্বজনরা জানান, সুমী শেরপুরের ফুলবাড়ী দক্ষিণ পাড়া গ্রামের ভ্যানচালক দুলাল খাঁ’র কন্যা। দুলাল-মরিয়ম দম্পতির দুই কন্যাশিশুর মধ্যে সুমী ছোট।

যমুনা অনলাইন:আরএম/মেহেরুল





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply