কোচিং চালু রাখায় বগুড়ায় ১১ জন আটক

|

বগুড়া ব্যুরো

এইচএসসি পরীক্ষা শুরুর আগেই এক মাসের জন্য সব ধরনের কোচিং সেন্টার বন্ধের নির্দেশনা দিয়েছিলো সরকার। কিন্তু সেই নির্দেশনা অমান্য করে দরজার বাইরে তালা ঝুলিয়ে বগুড়ায় দিব্যি কোচিং সেন্টারগুলোতে ক্লাশ চালানো হচ্ছিলো। এমন খবরে মঙ্গলবার বিকেলে শহরের জলেশ্বরীতলা এলাকায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে আটক করা হয়েছে কোচিংগুলোর ১১জন শিক্ষক ও পরিচালককে।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মমতাজ মহলের নেতৃত্বে জলেশ্বরীতলা এলাকার ২০টি কোচিং সেন্টারে অভিযান চালানো হয়। এরমধ্যে ১৩টি কোচিং সেন্টারই গোপনে কোচিংয়ের ক্লাশ চালিয়ে যাচ্ছিলো। পরে কোচিংগুলো বন্ধ করে দেয়া হয় এবং এসব কোচিং পরিচালনায় যুক্ত ১১ জনকে আটক করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মমতাজ মহল জানান, এইচএসসি পরীক্ষার শুরুতেই সরকার সব ধরনের কোচিং পরীক্ষা শেষ না হওয়া পর্যন্ত বন্ধ রাখার নির্দেশনা দেয়। ওই নির্দেশনার পর ওই এলাকার কোচিং সেন্টারগুলোকে কয়েক দফা সতর্কও করা হয়। কিন্তু এরপরও তারা নির্দেশনা অমান্য করে কোচিংয়ে ক্লাশ চালিয়ে যাচ্ছিলো। শহরের অন্য এলাকার কোচিং সেন্টারগুলোতেও এমন ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হবে বলে জানান মমতাজ মহল।

এদিকে আটক কোচিং পরিচালক ও শিক্ষকদের ছবি তুলতে গেলে তারা গণমাধ্যমকর্মীদের ওপর চড়াও হবার চেষ্টা করেন। পরে পুলিশ সদস্যরা তাদের নিবৃত্ত করেন।









Leave a reply