ফের সাময়িক বরখাস্ত নন্দীগ্রাম উপজেলা চেয়ারম্যান

|

বগুড়া ব্যুরো:

বগুড়ার নন্দীগ্রাম উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নূরুল ইসলাম মণ্ডলকে আবারো সাময়িক বরখাস্ত করেছে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়। নাশকতার দুটি মামলায় তার বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র আদালতে গৃহীত হওয়ায় গত বুধবার তাকে দ্বিতীয় দফায় চেয়ারম্যান পদ থেকে সাময়িক বরখাস্ত করে মন্ত্রণালয়টি। রোববার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এই পরিপত্র হাতে পেয়েছেন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শারমিন আক্তার জানান, প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, নন্দীগ্রাম, বগুড়া সদর ও শাজাহানপুর থানায় উপজেলা জামায়াতের এই আমিরের বিরুদ্ধে দায়ের করা নাশকতার মামলাগুলোর অভিযোগপত্র আদালতে গৃহীত হওয়ায় উপজেলা পরিষদ আইনের ‘১৩ (খ) (১)’ ধারা মোতাবেক নূরুল ইসলাম মণ্ডলকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব জুলিয়া মঈনের ৪ এপ্রিল স্বাক্ষর করা প্রজ্ঞাপন রোববার হাতে পেয়েছেন বলে জানিয়েছেন নির্বাহী কর্মকর্তা।

নন্দীগ্রাম থানা পুলিশ জানিয়েছে, ২০১৩ সালের ৩ মার্চ যুদ্ধাপরাধের দায়ে ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত জামায়াত নেতা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীকে চাঁদে দেখার গুজব ছড়িয়ে বগুড়া শহরের পাশাপাশি নন্দীগ্রাম উপজেলাতেও চলে তাণ্ডব। সরকারি দফতরসহ আগুন লাগিয়ে দেয়া হয় উপজেলার অসংখ্য স্থানে। সেসব নাশকতার ৫টি মামলার আসামী উপজেলা চেয়ারম্যান নূরুল ইসলাম।

এছাড়া বগুড়া সদর ও শাজাহানপুর থানায় তার বিরুদ্ধে বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা রয়েছে। নূরুল ইসলাম মণ্ডলকে এর আগেও সাময়িক বরখাস্ত করেছিলো মন্ত্রণালয়। কয়েক দফা কারাগারেও গিয়েছিলেন তিনি। পরে উচ্চ আদালতে আপিল করে চেয়ারম্যান পদ ফিরে পেয়েছিলেন তিনি।









Leave a reply