‘আমার থেকে টাকা নিয়ে আমার বুকেই পিস্তল ঠেকিয়ে অভিনয় ছাড়তে বলে জায়েদ খান’ (ভিডিও)

|

রাত পোহালেই শিল্পী সমিতির নির্বাচন। আর এই নির্বাচনের আগের রাতেই (২৭ জানুয়ারি) যমুনা টেলিভিশনের মুখোমুখি হন চিত্রনায়িকা পপি। সেখানে তিনি জায়েদ খানের বিরুদ্ধে সরাসরি অভিযোগ তুলে বলেন, সে আমার কাছ থেকে টাকা ধার করে পিস্তল কিনে আমারই বুকে ঠেকিয়ে বলে বেশি বাড়াবাড়ি করার দরকার নেই, যতটুকু পার কাজ করে বেরিয়ে যাও।

জায়েদ খানের বিরুদ্ধে অনেক অভিযোগ এনেছেন জনপ্রিয় এই অভিনেত্রী। তিনি বলেন, জায়েদ খানের কোনো অভিনয়ের দক্ষতা নেই। অথচ সে আমাকেই অভিনয় ছেড়ে দিতে বলে। আগেরবারের শিল্পী সমিতি নির্বাচনে আমি’সহ রিয়াজ, শাকিল খান সবাইকে সামনে রেখে সে নির্বাচন করে জিতেছে। পরে ক্ষমতায় আসার পর সে সম্পূর্ণ উল্টে যায়। সে তার ক্ষমতার অপব্যবহার করে নানা ধরনের অপকর্ম শুরু করে। আমি এইসব অপকর্মে সহায়তা না করে প্রতিবাদ করায় আমাকে শিল্পী সমিতির সদস্য পদ থেকে বাদ দেয়া হয়েছে।

পপি আরও বলেন, জায়েদ আমাকে নানাভাবে হুমকি দিয়ে যাচ্ছিল। সে আমাকে বলে, আমার ভাইয়ের নামে মামলা দিবে। আমার বোন অবিবাহিত। তাকে বিভিন্নভাবে ফাঁসিয়ে দেয়ারও হুমকি দেয় জায়েদ খান। আমি এসব অভিযোগ আমাদের সিনিয়রদেরকে জানালে তারা এ ব্যাপারে সাহায্য করতে অপারগতা প্রকাশ করে। পরে মিশা ভাইকে বললে, সবার সামনে জায়েদ আমার কাছে ক্ষমা চায়। কিন্তু পরবর্তীতে সে আবার অপকর্ম শুরু করে। আমার সাথে খারাপ ব্যবহার করে।

ক্ষমতার অপব্যবহার করেন জায়েদ খান, এমনটা উল্লেখ করে পপি অভিযোগে বলেন, জায়েদ মূলত তার চেয়ারকে পুঁজি করে অন্যান্য ব্যবসা করে। তার মূল ব্যবসা আদম ব্যবসা। ক্ষমতায় এসে জায়েদ মূলত তার ব্যক্তি স্বার্থ উদ্ধার করেছে। সে কখনো শিল্পী সমিতি নিয়ে ভাবেনি। সে কখনো চলচ্চিত্রের মানোন্নয়ের জন্য কাজ করেনি।

ভিডিও দেখতে ক্লিক করুন

ভবিষ্যতে আবার চলচ্চিত্রে আসা নিয়ে এই চিত্রনায়িকা বলেন, ভবিষ্যতে যদি পরিবেশ সুন্দর হয়, সবাই তার যোগ্য সম্মান পায় তাহলে আবারও অভিনয়ে ফেরার ইচ্ছে আছে। আমাদের ইন্ডাস্ট্রি বর্তমানে অভিভাবক শূন্য। ইন্ডাস্ট্রির জন্য ভালো একজন অভিভাবক দরকার। আর যারা আন-প্রফেশনাল অভিনেতা আছে তাদেরকে শিল্পী সমিতি থেকে বের করে দেয়ারও আহ্বান জানান এই জনপ্রিয় অভিনেত্রী।

তিনবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত এই অভিনেত্রী বলেন, আমার নিজের আর চাওয়া বলতে কিছু নেই। আমি চাই চলচ্চিত্র আবার সেই সোনালি যুগ ফিরে পাক। আগের মতো রমরমা হয়ে উঠুক।

/এনএএস





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply