বিএনপি নেত্রী সুচিকিৎসা পাচ্ছেন না: ফখরুল

|

অবিলম্বে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তি চেয়ে নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন দাবি করেছেন বিএনপি নেতারা। শনিবার বরিশালে বিএনপি’র বিভাগীয় সমাবেশে বক্তারা এ দাবি জানান।

শনিবার সকাল থেকে বরিশাল ঈদগাহ ময়দানে জড়ো হতে থাকেন বিএনপি’র নেতাকর্মীরা। দুপুরে সমাবেশে হাজির হন বিএনিপি’র মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ।

সমাবেশে মির্জা ফখরুল বলেন, দেশের গণতন্ত্র নেই, আইনের শাসন নেই। আমরা বারবার বলেছি, বেগম খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য তার ব্যক্তিগত চিকিৎসকদের যেন সুযোগ দেয়া হয়। কিন্তু সেই সুযোগ দেয়া হয়নি। তিনি বারবার বলেছেন, আমাকে পিজি হাসপাতাল নয়, একটি বেসরকারি হাসপাতালে তার পরীক্ষাগুলো করতে। সরকার শুনে নাই। গণতন্ত্রের নেত্রীকে সরকার সুচিকিৎসা দিচ্ছে না।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ সরকারের ধারণা ছিলো খালেদা জিয়া কারাগারে থাকলে বিএনপি ঝিমিয়ে পড়বে, ফাটল দেখা দেবে নেতৃত্বে। কিন্তু আগের চেয়ে অনেক বেশি ঐক্যবদ্ধ এখন বিএনপি।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, সভা-সমাবেশ করতে হয়রানির শিকার হতে হচ্ছে।

সভায় আরও বক্তব্য রাখেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. মঈন খান, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী।

৬ জেলার কয়েক হাজার নেতাকর্মী অংশ নেন বিভাগীয় সমাবেশে। সমাবেশ চলাকালে মঞ্চের সামনে বসানোকে কেন্দ্র করে ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন। পরে নেতাদের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে।

যমুনা অনলাইন: টিএফ









Leave a reply