‘ইরাক যুদ্ধেও মানবাধিকার সংস্থাগুলো যুক্তরাষ্ট্রকে ভুল তথ্য দিয়েছিল’

|

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন। ফাইল ছবি।

র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নকে (র‍্যাব) জাতিসংঘের শান্তিরক্ষা মিশন থেকে নিষিদ্ধ করার দাবি জানিয়েছে ১২টি আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা। জাতিসংঘের আন্ডার সেক্রেটারি জেনারেল জ্যাঁ পিয়েরে ল্যাকরোইক্সকে চিঠি দিয়ে সংস্থাগুলো এ দাবি তুলেছে। এ নিয়ে দেশজুড়ে উত্তপ্ত আলোচনা চলছে। তবে শুরু থেকেই র‍্যাবের পক্ষে কথা বলছেন বাংলাদেশের সরকার সংশ্লিষ্টরা। আজ পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, ওই সংস্থাগুলো র‍্যাব নিয়ে ভুল তথ্য দিচ্ছে। ইরাক যুদ্ধের সময়ও এই মানবাধিকার সংস্থাগুলো ভুল তথ্য দিয়ে যুক্তরাষ্ট্রকে বিভ্রান্ত করেছিল।

মঙ্গলবার (২৫ জানুয়ারি) সকালে ধানমন্ডিতে বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের ২১ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। পররাষ্ট্রমন্ত্রী মনে করেন, মানবাধিকার সংস্থাগুলো কারো দ্বারা প্রভাবিত হয়েছে।

এছাড়া ওই ১২ মানবাধিকার সংস্থার চিঠিতে শান্তিরক্ষী মিশনে বাংলাদেশের ওপর নেতিবাচক কোনো প্রভাব পড়বে না বলেও জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন।

প্রসঙ্গত, জাতিসংঘের শান্তিরক্ষা কার্যক্রমে বাংলাদেশ বর্তমানে সর্বোচ্চ শান্তিরক্ষী প্রেরণকারী দেশ। এর আগে গত ১০ ডিসেম্বরে দেশটির এলিট ফোর্স র‍্যাবের সাবেক ও বর্তমান সাত কর্মকর্তার ওপর নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।

/এডব্লিউ





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply