এরদোগানকে ষাঁড়ের সাথে তুলনা করায় কারাগারে নারী সাংবাদিক

|

ছবি: সংগৃহীত।

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগানকে ষাঁড়ের সাথে তুলনা করে অবমাননার অভিযোগে সাদাফ কাবাস নামে দেশটির এক নারী সাংবাদিককে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

শনিবার (২২ জানুয়ারি) দিবাগত রাত ২টার দিকে নিজ বাড়ি থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। ইস্তাম্বুলের একটি আদালত বিচারকাজ শুরুর আগ পর্যন্ত তাকে কারাগারে থাকতে নির্দেশ দিয়েছেন। খবর এএফপির।

আলোচিত ওই নারী সাংবাদিকের বিরুদ্ধে অভিযোগ, বিরোধী দলের একটি টিভি চ্যানেলের লাইভ অনুষ্ঠানে এরদোগানকে উদ্দেশ করে কটূক্তিমূলক কথা বলেন তিনি।

‘টেলি ওয়ান’ নামের ওই টিভি চ্যানেলের লাইভ শোতে সাদাফ কাবাস বলেন, বিখ্যাত একটি প্রবাদ রয়েছে— ‘রাজমুকুটধারীরা জ্ঞানী হন’। তবে এটি সত্য নয়। ওই নারী সাংবাদিক আরও বলেন— ‘রাজপ্রাসাদে ষাঁড় ঢুকলে রাজা হতে পারে না; বরং প্রাসাদটাই গোয়ালঘর হয়ে যায়।’

চ্যানেলটিকে দেয়া এই বক্তব্য সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারেও পোস্ট করেন সাদাফ কাবাস। অভিযোগ প্রমাণিত হলে তার এক থেকে চার বছরের কারাদণ্ড হতে পারে। তবে অভিযোগ অস্বীকার করেছেন কাবাস।

এদিকে, তুর্কি প্রেসিডেন্ট এরদোগানের প্রধান মুখপাত্র ফাহরেতিন আলতুন ওই নারী সাংবাদিকের মন্তব্যকে ‘দায়িত্বজ্ঞানহীন’ বলে উল্লেখ করেছেন।

এক টুইটার বার্তায় তিনি লেখেন, তথাকথিত এক সাংবাদিক টেলিভিশন চ্যানেলে নির্লজ্জভাবে আমাদের প্রেসিডেন্টকে অসম্মান করেছেন। বিদ্বেষ ছড়ানো ছাড়া এই সাংবাদিকের আর কোনো উদ্দেশ্য নেই।

জেডআই/





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply