বন্ধের মধ্যেও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোকে মানতে হবে যেসব নির্দেশনা

|

করোনা সংক্রমণ হঠাৎ বাড়ার ফলে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে শারীরিক ক্লাস কার্যক্রম দুই সপ্তাহের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। এই দুসপ্তাহ অনলাইন ক্লাস চললেও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোর অফিস চালু থাকবে। প্রতিষ্ঠানগুলোতে জরুরি প্রয়োজনে স্বাস্থ্যবিধি মেনে শিক্ষক ও কর্মচারীদের দায়িত্বে নিয়োজিত রাখতে পারবেন প্রধান।

আজ শনিবার (২২ জানুয়ারি) এসব নিয়ে ১১ দফঠা নির্দেশনা দিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। বন্ধের মধ্যে কীভাবে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান চলবে, এ নিয়ে দেয়া নির্দেশনার মধ্যে রয়েছে স্বাস্থ্যবিধি মেনে ১২ থেকে ১৭ বছর বয়সী শিক্ষার্থীদের করোনার টিকা কার্যক্রম চলমান রাখার কথা।

শ্রেণিকক্ষ, গ্রন্থাগার, গবেষণাগারসহ প্রতিষ্ঠানের সব বিদ্যুৎ, টেলিফোন, ইন্টারনেট, পানি ও গ্যাস–সংযোগ নিরবচ্ছিন্ন ও নিরাপদ রাখতে সর্বোচ্চ সতর্কতা অবলম্বন করতেও নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের সব সম্পদ রক্ষণাবেক্ষণ ও সামগ্রিক নিরাপত্তার বিষয়টির প্রতি বিশেষ গুরুত্ব দিতে বলা হয়েছে নির্দেশনায়।

এ ছাড়া পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছাত্রাবাসগুলো খোলা রাখতে বলা হয়েছে। তবে এজন্য সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মানার শর্ত দেয়া হয়েছে।

নির্দেশনায় বলা হয়েছে, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতরের অধীনস্থ সব দফতর ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে কর্মরতদের অবশ্যই টিকা সনদ সংগ্রহ করতে হবে। দেশের বিভিন্ন এলাকায় চলমান ক্রীড়া প্রতিযোগিতাগুলোকেও স্থগিত রাখতে বলা হয়েছে। এর সাথে সাথে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোর নিয়মিত পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রমও অব্যাহত রাখার কথা বলা হয়েছে ওই নির্দেশনায়।

/এডব্লিউ





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply