বাবা দ্বিতীয় বিয়ে করায় মেয়ের আত্মহত্যা

|

সিনিয়র করেসপনডেন্ট, নাটোর:

নাটোরে স্বামী দ্বিতীয় বিয়ে করায় স্ত্রী ও কন্যা একসাথে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছে। পরে সদর হাসপাতালে কন্যার মৃত্যু হয়েছে এবং স্ত্রীকে আশংকাজনক অবস্থায় রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। শনিবার (২২ জানুয়ারি) দুপুর ১টার দিকে সদর উপজেলার হালসা গ্রামে এই ঘটনাটি ঘটে। নিহত মেয়ে মুন্নি খাতুন সাবেক ইউপি সদস্য খোরশেদ আলমের মেয়ে ও নাটোর রাণী ভবানী সরকারি মহিলা কলেজের বাংলা ২য় বর্ষের শিক্ষার্থী ছিল।

সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মনছুর রহমান জানায়, সাবেক ইউপি সদস্য খোরশেদ আলম প্রথম পক্ষের স্ত্রী ও মেয়ে রেখে সম্প্রতি গোপনে আরেকটি বিয়ে করেন। এই ঘটনাটি পরিবারে জানাজানি হলে পরিবারের সদস্যদের মধ্যে কলহের সৃষ্টি হয়। এনিয়ে তাদের মধ্যে প্রায়ই ঝগড়া বিবাদ লেগেই থাকতো। পরে শনিবার দুপুরে এই ঘটনাটি নিয়ে খোরশেদের সাথে তার স্ত্রী ও মেয়ের ঝগড়া হয়। পরে মা ও মেয়ে তাদের ঘরে গিয়ে এক সাথে গলায় রশি দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করে।

আরও পড়ুন: স্বামীর দ্বিতীয় বিয়ে আটকাতে স্ত্রীর অবস্থান ও অনশন

ঘটনাটি পরিবারের অন্য সদস্যরা দেখতে পেয়ে আহত অবস্থায় তাদের দু’জনকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক মেয়ে মুন্নিকে মৃত ঘোষণা করেন এবং মা জাহেদা বেগমকে আশংকাজনক অবস্থায় রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। এ ঘটনায় থানায় এখনো কোনো অভিযোগ দায়ের হয়নি । ময়নাতদন্ত শেষে মরদেহটি পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

/এনএএস





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply