মেয়ের ধর্ষককে আদালতের সামনেই গুলি করে হত্যা সাবেক বিএসএফ কর্মকর্তার

|

ছবি: সংগৃহীত।

মেয়েকে অপহরণ ও ধর্ষণ করার দায়ে অভিযুক্ত আসামিকে আদালতের গেটের সামনেই গুলি করে হত্যা করেছেন ভারতের সীমান্ত রক্ষা বাহিনী বিএসএফের এক সাবেক কর্মকর্তা। শুক্রবার (২১ জানুয়ারি) উত্তরপ্রদেশের গোরক্ষপুরে এ ঘটনা ঘটে। এরই মধ্যে গ্রেফতার করা হয়েছে সেই বিএসএফের সাবেক কর্মকর্তা ও তার ছেলেকে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজার পত্রিকার সূত্র বলছে, নিহত ওই যুবকের নাম দিলশাদ হুসেন (২৫)। শুক্রবার মামলা সংক্রান্ত কাজে আদালতে যান তিনি। আদালতের গেটের সামনে দাঁড়িয়ে নিজের আইনজীবীর জন্য অপেক্ষা করছিলেন দিলশাদ। এরই মধ্যে সেখানে পৌঁছে যান সাবেক বিএসএফ কর্মকর্তা ভগবত নিশাদ এবং তার ছেলে নন্দলাল।

সুযোগ বুঝে দিলশাদের মাথা লক্ষ্য করে নিজের লাইসেন্স করা বন্দুক দিয়ে গুলি ছোড়েন ভগবত। এরপরই সেখান থেকে সরে পড়েন তিনি ও তার ছেলে। ততক্ষণে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে দিলশাদের দেহ, আদালত চত্ত্বরেও হৈচৈ শুরু হয়ে যায়। ঘটনার পর সাবেক এই বিএসএফ কর্মকর্তা ও তার ছেলেকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

আরও পড়ুন: গাড়িতে নাচার দায়ে বরখাস্ত তিন পুলিশ

প্রসঙ্গত, ২০২০ সালের ১২ ফেব্রুয়ারি ভগবতের নাবালিকা মেয়েকে অপহরণ এবং ধর্ষণের অভিযোগ ওঠে দিলশাদের বিরুদ্ধে। ২০২১ সালের ১২ মার্চ হায়দরাবাদ থেকে দিলশাদকে গ্রেফতার করে পুলিশ। তারপরই তাকে জেলে পাঠানো হয়। দুই মাস আগে জামিনে জেল থেকে বের হয় এই যুবক। এরপরই ভগবতের গুলিতে তার মৃত্যু হলো।

এসজেড/





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply