‘বিএনপি নেতাদের ব্যাংক লেনদেন তদন্তে সরকারের হাত নেই’

|

প্রদ্যুৎ কুমার সরকার, মাদারীপুর

নৌপরিবহন মন্ত্রী বলেছেন, বিএনপি নেতাদের সন্দেহভাজন ব্যাংকে যে অর্থ লেনদেন হয়েছে দুদকের এই অনুসন্ধানে সরকারের কোন হাত নেই। দুর্নীতি দমন কমিশন স্বাধীন। শুক্রবার সকালে মাদারীপুরের পানিছত্র এলাকায় ক্যাম্পস কিডনী এ্যান্ড ডায়ালাইসিস সেন্টারের উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে তিনি এ কথা বলেন।

এ সময় নৌমন্ত্রী আরো বলেন, খালেদা জিয়ার আমলে আন্তর্জাতিক হিসেবে দেশে দুর্নীতির অবস্থান ছিলো প্রথম পর্যায়ে। এতেই বোঝা যায় বিএনপি দুর্নীতিতে চ্যাম্পিয়ন। আর শেখ হাসিনার সরকার এটিকে কমিয়ে ১৭ নম্বরে এনেছে।

দুর্নীতি দমন কমিশন স্বাধীন উল্লেখ্য করে শাজাহান খান আরো বলেম, দুর্নীতি দমন কমিশন যত তৎপর হবে, দেশে দুর্নীতির পরিমান ততই কমে আসবে। এখানে বিএনপি নেতারা শুধু নয়, সরকার দলের এমপিও দুদকের অনুসন্ধান থেকে বাদ পড়ছেনা।

বিএনপির সিনিয়র ভাই পেসিডেন্ট তারেক রহমান শীর্ষ দুর্নীতিবাজ দাবি করে নৌমন্ত্রী আরও বলেন, তারেক রহমান শীর্ষ দুর্নীতিবাজ হওয়ায় তাকে আমেরিকান ভিসা দেননি যুক্তরাষ্ট। এই দুর্নীতির জন্য আমেরিকায় তারেক রহমানকে অবস্থান করতে নিষেধাজ্ঞা দেয়। বিএনপি শুধু নিজেদের দিকটাই দেখেন, অন্যদেরটা দেখতে চান না। বিএনপি নেতাদের ব্যাংকে অর্থ লেনদেনের অনুসন্ধান শেষে দুদক অভিযোগপত্র আদালতে দিবে, এরপর আইনগত ব্যবস্থা নিবে আদালত। এখানে সরকারের কোন হাত নেই।

ক্যাম্পসের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ডা. এমএ সামাদের সভাপতিত্বে এ সময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মাদারীপুরের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ সরোয়ার হোসেন, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট সজল নুর, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান পাভেলুর রহমান শফিক খান, সাবেক পৌর মেয়র নুর-ই আলম বাবু চৌধুরী, ক্যাম্পস-এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক নাসরিন বেগমসহ অন্যরা।









Leave a reply