আলোচিত শাহীন হত্যা মামলায় রিমান্ড শেষে কারাগারে ইউপি চেয়ারম্যান

|

ছবি: সংগৃহীত


স্টাফ করেসপন্ডেন্ট:

ফেনীর পরশুরামের মির্জানগর ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) চেয়ারম্যান মোহাম্মদ নুরুজ্জামান ভুট্টোকে রিমান্ড শেষে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।


বুধবার (১৯ জানুয়ারি) একদিনের রিমান্ড শেষে আদালতের নির্দেশে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়। রিমান্ডে তিনি শাহীন চৌধুরীকে হত্যার সাথে নিজের সম্পৃক্ততার অভিযোগ অস্বীকার করেছেন বলে পুলিশ জানিয়েছে।

পুলিশ জানিয়েছে, ইউপি চেয়ারম্যান নুরুজ্জামান ভুট্টো নিজেকে নির্দোষ দাবি করেন। তিনি ঘটনাস্থলে সালিস করে দিতে গিয়েছিলেন বলে জিজ্ঞাসাবাদে দাবি করেন। তবে শাহীন চৌধুরীর সাথে তর্কাতর্কির একপর্যায়ে তার সহযোগীরা শাহীন চৌধুরীকে মারধর করেছেন বলে স্বীকার করেন।

আদালতের নির্দেশ মোতাবেক গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় শাহীন হত্যা মামলায় জিজ্ঞাসাবাদ করতে ইউপি চেয়ারম্যানকে থানায় নিয়ে যান মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা পুলিশের উপ- পরিদর্শক (এসআই) সুরোজিত বড়ুয়া।

আলোচিত শাহীন চৌধুরী হত্যা মামলার দুই নম্বর আসামি ও মির্জানগরের ইউপি চেয়ারম্যান নুরুজ্জামান ভুট্টোকে গত সোমবার একদিনের রিমান্ডে পাঠান আদালত। ফেনীর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক ফারহানা লোকমান পুলিশের পাঁচ দিনের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে একদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

প্রসঙ্গত, নুরুজ্জামান ভুট্টো মির্জানগর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক। গত ২৩ ডিসেম্বর পরশুরামে দোকান কর্মচারী শাহীন চৌধুরী হত্যা মামলার দুই নম্বর আসামি তিনি। এর আগে, গত ২৫ ডিসেম্বর আদালতে হত্যার দায় স্বীকার করে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেয় আলোচিত এ মামলার দুই প্রধান আসামি মো. রহিম ও মো. আরিফ হোসেন।

ফেনী জজকোর্টের আইনজীবী গাজী তারেক আজিজ জানান, ভুট্টোকে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে আদালতের নির্দেশে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

/এসএইচ





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply