পটুয়াখালীতে মা-ছেলের রহস্যজনক মৃত্যু

|

স্টাফ রিপোর্টার, পটুয়াখালী: 

পটুয়াখালীর দুমকি উপ‌জেলায় মা ও তার দেড় বছরের ছেলের রহস্যজনক মৃত্যু ঘটেছে। বুধবার (১৯ জানুয়ারি) দুপুর ২টার দিকে উপজেলার পাঙ্গাশিয়া ইউ‌নিয়নের ধোপারহাট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। মৃতরা হলেন ওই ইউ‌নিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের ইউ‌পি সদস্য মো. আনোয়ার চৌ‌কিদারের ৩০বছর বয়সী কন্যা ফাতেমা বেগম ও ফাতেমার দেড় বছর বয়সী শিশু পুত্র সিফাত।

ফাতেমা বেগমের স্বামী মো. নিজাম উ‌দ্দিন ঢাকায় এক‌টি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে কর্মরত। মা ও ছেলের মৃতদেহ  বর্তমানে দুমকি থানায় রাখা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২০ জানুয়ারি) পোষ্টমর্টেমের জন্য তাদের দুইজনের মৃতদেহ পটুয়াখালী মে‌ডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হবে বলে নি‌শ্চিত করেছেন দুমকি থানার অ‌ফিসার ইনচার্জ (ও‌সি ) আবদুস সালাম। 

ফাতেমার বাড়ির লোকজনের বরাৎ দিয়ে তার বাবা আনোয়ার চৌকিদার জানান, তার নাতি সিফাত দুগ্ধপানের পরে মায়ের কোলেই ঢলে পড়ে মারা যায় এবং পরবর্তীতে ছেলের মৃত্যু সহ্য করতে না পেরে মা ফাতেমা বেগম অসুস্থ হয়ে পড়ে। পরব‌র্তিতে তাকে সেখান থেকে পটুয়াখালী মে‌ডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। 

পাঙ্গাশিয়া ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মো. আলমগীর সিকদার জানান, শিশু সিফাতের মৃত্যুর শোকে তার মা মারা যেতে পারে। তবে স্থানীয় একটি সূত্রের দাবি, দীর্ঘদিন ধরে অসুস্থ থাকায় বিকারগ্রস্ত হয়ে ফাতেমা বেগম নিজে আগে বিষপান করেছে পরে সেই অবস্থায় শিশুপুত্রকে দুগ্ধ পান করালে বিষক্রিয়ায় শিশুপুত্র মারা যেতে পারে।

পাঙ্গা‌শিয়া ইউনিয়‌নের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট গাজী নজরুল ইসলাম জানান, খবর পেয়ে আমি ঘটনাস্থলে গিয়ে ফাতেমার লাশ দেখেছি। তবে স্বাভাবিক মৃত্যু হয়েছে বলে আমার ধারণা। তবে শিশুটি কিভাবে মারা গেছে তা বলতে পারব না।

দুমকি থানার অফিসার ইনচার্জ আবদুস সালাম জানান, পুরো বিষয়‌টি রহস্যজনক। যে কারণে পোষ্টমর্টেম রিপোর্ট না আসা পর্যন্ত তাদের মৃত্যুর স‌ঠিক কারণ বলা মুশ‌কিল। তবে প্রাথ‌মিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে যে, ফাতেমা বিষ পান করেছে। ফাতেমার স্বামী নিজাম উ‌দ্দিন ঢাকা থেকে বাড়ির উদ্দেশে রওনা হয়েছে বলেও তি‌নি জানান।

/এনএএস





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply