৫ বছরের জেল হলো সালমান খানের

|

হরিণ শিকার মামলায় ৫ বছরের কারাদণ্ড হয়েছে বলিউড সুপারস্টার সালমান খানের। আজ রাজস্থানের যোধপুরের আদালত এই রায় দিয়েছেন। একই সাথে তাকে ১০ হাজার রুপি জরিমানা করেছেন আদালত। তাকে যোধপুর কেন্দ্রীয় কারাগারে নেয়া হচ্ছে।

বিচারক দেব কুমার ক্ষত্রি রায় ঘোষণার সময় বলেন, সালমান খানের আইন লঙ্ঘনের দীর্ঘ ইতিহাস রয়েছে। বেআইনি কাজকর্ম করা তার স্বভাব হয়ে দাড়িয়েছে। মামলার বাকি আসামি সাইফ আলী খান, নীলম, সোনালী বান্দ্রে ও টাবুকে খালাস দিয়েছেন আদালত।

২০ বছর ধরে চলা এই মামলায় এর আগে সালমান আদালতে নিজেকে নির্দোষ দাবি করে বলেন, হরিণগুলো এমনিতেই মারা গেছে। তাকে ফাঁসানো হচ্ছে।

সালমান খানের আইনজীবী এইচ এম সরস্বত শুনানির সময় বলেছিলেন, এই মামলায় অনেক ত্রুটি বিচ্যুতি রয়েছে। প্রসিকিউশন সন্দেহাতীতভাবে অভিযোগ প্রমান করতে পারেনি। রাষ্ট্রপক্ষের বিরুদ্ধে তথ্যপ্রমাণ বিকৃতি ও অতিরঞ্জিত করে উপস্থাপন ও ভুয়া সাক্ষ্যপ্রদানের অভিযোগও আনেন তিনি। বলেন, গুলিতেই যে হরিণের মৃত্যু হয়েছে, তা প্রমাণ করা যায়নি।

১৯৯৮ সালে ‘হাম সাথ সাথ হ্যায়’ সিনেমার শ্যুটিংয়ে রাজস্থানে যান সালমান ও সহশিল্পীরা। ১ ও ২ অক্টোবর যোধপুরের কাছে কঙ্কনি গ্রামে তারা দুটি বিরল প্রজাতির কৃষ্ণ হরিণ শিকার করেন।ভারতের বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ আইনের ৫১ ধারা অনুযায়ী সালমান ও তার সঙ্গীদের বিরুদ্ধে মামলা হয়।









Leave a reply