‘দাম্পত্য কলহের জেরেই চিত্রনায়িকা শিমুকে হত্যা’

|

ছবি: সংগৃহীত

দাম্পত্য কলহের জেরেই চিত্রনায়িকা রাইমা ইসলাম শিমুকে হত্যা করে তার স্বামী সাখাওয়াত আলিম নোবেল। হত্যার পর লাশ গুম করতে কেরাণীগঞ্জে নেয়া হয়। মঙ্গলবার (১৮ জানুয়ারি) দুপুরে এ তথ্য জানান ঢাকা জেলা পুলিশ সুপার মারুফ হোসেন সরদার।

তিনি বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে হত্যার কথা স্বীকার করেছে শিমুর স্বামী নোবেল ও তার বন্ধু। এ ঘটনায় তাদের গ্রেফতার দেখানো হয়েছে। শিমুকে যে গাড়িতে করে কেরাণীগঞ্জের আলীপুর ব্রিজের পাশে ফেলে যাওয়া হয়, সেই গাড়িও জব্দ করে থানায় রাখা হয়েছে।

আরও পড়ুন: অভিনেত্রী শিমু হত্যা: দায় স্বীকার স্বামী নোবেলের

সোমবার সকালের দিকে খবর পেয়ে কেরাণীগঞ্জ থেকে অভিনয়শিল্পী শিমুর বস্তাবন্দি মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। এর আগে এই অভিনয় শিল্পীর স্বামী নিখোঁজ মর্মে রোববার রাজধানীর কলাবাগান থানায় সাধারণ ডায়েরি করে।

রাইমা ইসলাম শিমুর বোন ফাতেমা জানিয়েছেন, রোববার বোনের খোঁজ না পেয়ে তারাও থানায় জিডি করেন। পরে পিবিআই মরদেহ উদ্ধারের বিষয়টি জানায়।

আরও পড়ুন: কেরাণীগঞ্জে বস্তাবন্দি কে এই চিত্রনায়িকা শিমু?

ইউএইচ/





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply