যে উৎসবে ঘোড়া নিয়ে পাড়ি দেয়া হয় অগ্নিকুণ্ড

|

স্পেনের রোমাঞ্চকর এক উৎসব লাস লুমিনারিয়াস। হাজার বছরের পুরানো এ উৎসবে ঘোড়া নিয়ে অগ্নিকুণ্ড পাড়ি দেয় ঘোড়সওয়ার। বিশ্বাস করা হয়, এর মধ্য দিয়ে পরিশুদ্ধ হবে প্রাণীটি, পরের বছর হয়ে উঠবে আরও তেজি। প্রাণি অধিকার সংগঠনগুলোর আপত্তি সত্ত্বেও প্রতিবছর সান বার্তোলুমে দি পিনারিস শহরে আয়োজন করা হয় ঐতিহ্যবাহী উৎসবটি।

লাস লুমিনারিয়াস উৎসবে দেখা যায়, প্রচণ্ড গতিতে একের পর এক ঘোড়া ছুটে চলছে জ্বলন্ত অগ্নিকুণ্ডের মধ্য দিয়ে। পিঠে আছে ঘোড় সওয়ার। যেন মধ্যযুগীয় কাহিনি নিয়ে কোনো সিনেমার দৃশ্য।

এর আগে আবার পাড়ি দিতে হয় পাথরের খোয়া ছড়ানো দুর্গম পথ। রোমাঞ্চকর এই খেলাকে ঘিরেই স্পেনে পালিত হয় ঐতিহ্যবাহী উৎসব লাস লুমিনারিয়াস। হাজার বছরের প্রাচীন এ উৎসব আয়োজন করা হয় সান বার্তোলুমে দি পিনারিস শহরে।

অঞ্চলটির বাসিন্দাদের কাছে প্রাণি দেবতা হিসেবে বিবেচিত সেইন্ট অ্যান্থনি। প্রতিবছর জানুয়ারির মাঝামাঝি সেইন্ট অ্যান্থনিস ডে-তে আয়োজন করা হয় এই উৎসবের। অনুষ্ঠানে উপস্থিতরা বলেন, হাজার বছর ধরে এ রীতি চললেও প্রাণীদের কখনও ক্ষতি হয়নি। প্রাচীন মুনি ঋষিদের আশীর্বাদপুষ্ট ওরা। সেকারণেই আগুনে ঝাপ দিয়ে পরিশুদ্ধ হতে পারে।

করোনার প্রভাবে গত বছর বন্ধ থাকার পর আবার পালিত হল উৎসবটি। প্রায় একশো ঘোড়া নিয়ে অংশ নেয় রোমাঞ্চপ্রিয়রা। মহামারির কারণে স্বাভাবিকের তুলনায় ভিড় ছিল কিছুটা কম।

প্রাণি অধিকার সংগঠনগুলো বহু বছর ধরেই সমালোচনা করে আসছে এমন আয়োজনের। তবে স্থানীয়দের দাবি, হাজার বছরের ঐতিহ্য পালনে সর্বোচ্চ নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হয়। এমনকি পুড়ে যাওয়া এড়াতে আগেই ফেলে দেয়া হয় ঘোড়ার লোম।

/এডব্লিউ





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply