সবচেয়ে বড় করোনা হাসপাতালটিতে নেই সুপেয় পানির ব্যবস্থা

|

ডিএনসিসি কোভিড হাসপাতালে রোগীদের জন্য নেই বিশুদ্ধ খাবার পানির সুব্যবস্থা। ৬ তলা বিশিষ্ট বিশেষায়িত এই হাসপাতালে সবকয়টি ফ্লোরে একাধিক পানির ফিল্টার থাকলেও তার সবগুলো অকেজো। ভবনের একপাশে ছিল ওয়াসার একটি পানির কল। সেটিও বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। ফলে খাবার পানি নিয়ে দুর্ভোগের সীমা নেই হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসা রোগী ও স্বজনদের।

করোনা রোগীদের জন্য দেশের সবচেয়ে বড় হাসপাতাল মহাখালীর ডিএনসিসি ডেডিকেটেড কোভিড-১৯ হাসপাতাল। করোনার প্রকোপ মোকাবেলায় গেলো বছরের এপ্রিল থেকে চিকিৎসা সেবা দিয়ে যাচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি। করোনা চিকিৎসায় বেশ সুনাম থাকলেও বিশুদ্ধ খাবার পানির সংকট এখানে নিত্যদিনের সঙ্গী। প্রতিটি ফ্লোরে একাধিক পানির ফিল্টার থাকলেও অতি ব্যবহারে এখন সবগুলোই অকেজো। এমনকি ভবনের একপাশে থাকা একমাত্র পানির কলটিও সম্প্রতি বন্ধ করে দিয়েছে ওয়াসা।

বাইরে থেকে কিনে আনা পানিই রোগীদের একমাত্র ভরসা। ফলে একদিকে সংক্রমণ ঝুঁকি, অন্যদিকে আর্থিকভাবেও চাপে পড়ছেন রোগীর স্বজনরা। এ অবস্থায় যে করেই হোক পানি সমস্যার স্থায়ী সমাধান চান তারা।

তবে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বলছে, পানির অপচয় রোধে বন্ধ করা হয়েছে ওয়াসার কল। আর অচিরেই নতুন করে কল স্থাপন করে বিশুদ্ধ পানি সরবরাহে সব ধরনের ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দিলেন হাসপাতালটির মেডিকেল অফিসার ডা. আনোয়ারুল ইসলাম।

সংকট কাটিয়ে চিকিৎসা সেবার সুনাম ধরে রাখতে কার্যকর সব পদক্ষেপ নেবে ডিএনসিসি কোভিড হাসপাতালের কর্মকর্তারা, এমন প্রত্যাশা রোগী ও স্বজনদেরও।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply