গাড়ির জানালা খোলায় গুনতে হলো ১৮ হাজার টাকা জরিমানা!

|

ছবি: সংগৃহীত

উবার নিয়ে যাত্রীরা প্রায়শই নানা খারাপ অভিজ্ঞতা শেয়ার করে থাকেন। তবে সম্প্রতি এক মহিলা যাত্রীর ১৮ হাজার টাকা জরিমানার ঘটনায় তাজ্জব হয়েছেন নেটিজেনরা। উবার চালকের আপত্তি থাকা সত্ত্বেও ক্যাবের জানালা খোলায় এতগুলো টাকা জরিমানা দিতে হলো তাকে।

সিপি২৪’র প্রতিবেদনে বলা হয়, নিজের সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টে সম্প্রতি আজব এই অভিজ্ঞতার কথা শেয়ার করেছেন টরেন্টো নিবাসী লেখিকা অ্যালিসা শোয়ার্টজ। সোমবার (১৭ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় বাড়ি যাওয়ার জন্য তিনি একটি উবার বুকিং করেছিলেন। গাড়িতে ওঠার পর অ্যালিসা দেখেন জানালার কাঁচ বন্ধ রয়েছে।

আরও পড়ুন: করোনার টিকা না নিলেই জরিমানা!

কোভিড গাইডলাইনের কথা মাথায় রেখেই তিনি চালককে জানলার কাঁচ নামিয়ে নেয়ার অনুরোধ করেন। কিন্তু, বাইরের তাপমাত্রা অত্যধিক কম থাকার অজুহাত দিয়ে চালক কাঁচ খুলতে রাজি হননি। কিন্তু, সম্প্রতি ছড়িয়ে পড়া ওমিক্রন প্রজাতির ভাইরাস সম্পর্কে সচেতন করেই অ্যালিসা কাঁচ খোলার জন্য অনুরোধ করেন চালককে। কিন্তু, তার অনুরোধ না শোনায় অ্যালিসা গাড়ি থেকে নেমে যাওয়ার কথাও বলেন।

অ্যালিসার দাবি, এরপরই ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেন উবার চালক। কোভিডকে কেবলমাত্র জ্বর বলে উল্লেখ করে যাত্রীকে রীতিমতো হুমকি দেয়ার অভিযোগ ওঠে চালকের বিরুদ্ধে। পাশাপাশি অ্যালিসাকে খারাপ রেটিং দেয়া এবং মোটা টাকা ফাইনের হুঁশিয়ারিও দেন চালক।

আরও পড়ুন: ডিউটি শেষ হওয়ায় মাঝপথে বিমান না চালানোর ঘোষণা পাইলটের!

এরপর বাড়িতে ঢুকে নিজের মোবাইলে উবার ভাড়ার রিসিট দেখেই চক্ষু চড়কগাছ হয় অ্যালিসার। তার দাবি, উবার-এর পক্ষ থেকে তাকে ২০৬.৮৯ ডলারের জরিমানা ধরানো হয়েছে। যা বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ১৮ হাজার টাকা। গোটা বিষয়টি জানিয়ে একটি টুইট করেছেন এই লেখিকা। অ্যালিসা টুইটে ক্ষোভ উগরে দেয়ার পর অবশেষে নড়েচড়ে বসে উবার। পুরো টাকাটাই ফেরত দেয়া হয় তাকে। কিন্তু, এভাবে একজন যাত্রীর সময় এবং টাকা অপচয় করার জন্য উবার-এর পরিষেবার নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন নেটিজেনরাও।

/এনএএস





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply