শাবিপ্রবিতে অনির্দিষ্টকালের জন্য ক্লাস-পরীক্ষা বন্ধ ঘোষণা, হল ত্যাগের নির্দেশ

|

উত্তপ্ত অবস্থায় শাবিপ্রবি।

সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (শাবিপ্রবি) অনির্দিষ্টকালের জন্য ক্লাস-পরীক্ষা বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। এছাড়া কাল দুপুরের মধ্যে হল ত্যাগের নির্দেশ দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

এর আগে আজ (১৬ জানুয়ারি), অবরুদ্ধ অবস্থায় থাকা শাবিপ্রবি উপাচার্জকে তালা ভেঙে উদ্ধার করা হয়েছে। প্রভোস্ট বডির পদত্যাগসহ ৩ দফা দাবিতে আন্দোলন করে আসছিল শাবিপ্রবির শিক্ষার্থীরা। শাবিপ্রবি উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমদ ৩০ দিনের সময় চাইলে আর কোনো কালবিলম্বে রাজি হয়নি আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা। তারা উপাচার্জকে আইসিটি ভবনে অবরুদ্ধ করে রাখে। আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের উপর পুলিশ প্রায় পঞ্চাশটির মতো সাউন্ড গ্রেনেড প্রয়োগ করে। পুলিশ সেখানে অবস্থান নেয়ার পর তাদের লাঠিচার্জ ও সাউন্ড গ্রেনেডের মুখে শিক্ষার্থীরা ছত্রভঙ্গ হয়ে যায়। শিক্ষার্থীদের যেখানে যে অবস্থায় পাওয়া গেছে সেখানেই পুলিশ তাদের বেধড়ক পিটিয়েছে। নারী শিক্ষার্থীদের উপরেও পুলিশ হামলা চালায়। সেখানে অবস্থানরত বিশ্ববিদ্যালয়টির কয়েকজন শিক্ষক সেই শিক্ষার্থীদের রক্ষা করার চেষ্টা করলে তাদের উপরেও পুলিশ লাঠিচার্জ করে।

আরও পড়ুন: শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ে আন্দোলনরত ছাত্রীদের ওপর ছাত্রলীগের হামলা!

শাবিপ্রবির উপাচার্জকে এরপর পুলিশি প্রহরায় আইসিটি ভবন থেকে সরিয়ে নেয়া হয়েছে। আহত শিক্ষার্থীদের সংখ্যা এখনও পরিষ্কারভাবে জানা যায়নি।

শিক্ষার্থীদের ৩ দফা দাবি পূরণে কোনো ধরনের আশ্বাস দেয়া হয়নি উপাচার্জ থেকে। বিশ্ববিদ্যালয়ের বেগম সিরাজুন্নেছা চৌধুরী ছাত্রী হলের প্রভোস্ট জাফরিন আহমেদ লিজার পদত্যাগসহ হলের গুণগত মান উন্নত এবং অব্যবস্থাপনার সুষ্ঠু সমাধানের দাবিতে আন্দোলন করে শিক্ষার্থীরা।

আরও পড়ুন: শাবিপ্রবিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে পুলিশের লাঠিচার্জ, ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply