দুর্নীতির নতুন আরও ৫টি অভিযোগ সু চির বিরুদ্ধে

|

মিয়ানমারের কারাবন্দী নেত্রী অঙ্গ সান সু চির বিরুদ্ধে নতুন আরও ৫টি দুর্নীতির অভিযোগ তুলেছে দেশটির সামরিক জান্তা।

মিয়ানমারের কারাবন্দি নেত্রী অং সান সু চির বিরুদ্ধে আরও ৫ টি দুর্নীতির অভিযোগ এনেছে দেশটির সামরিক জান্তা। এসব অভিযোগ প্রমাণিত হলে প্রতিটি অভিযোগের জন্য ১৫ বছর করে কারাভোগ করতে হবে সু চিকে। খবর রয়টার্সের।

মঙ্গলবার (১৪ জানুয়ারি) মিয়ানমারের জান্তা আদালতের এক সূত্রের বরাতে রয়টার্স জানিয়েছে, সু চির বিরুদ্ধে আনা অভিযোগগুলো সম্পর্কে এখনও বিস্তারিত কিছু জানা যায়নি। তবে ক্ষমতায় থাকা অবস্থায় একবার অবৈধভাবে হেলিকপ্টার ভাড়া করেছিলেন সু চি- বলে উল্লেখ করা হয়েছে একটি অভিযোগে।

৭৬ বছর বয়সী শান্তিতে নোবেলজয়ী মিয়ানমারের গণতন্ত্রপন্থী নেত্রী সু চির বিরুদ্ধে ইতোমধ্যেই প্রায় এক ডজন মামলা করেছে মিয়ানমারের সামরিক জান্তা সরকার। রাজধানী নেইপিদোর জান্তা পরিচালিত আদালতেই চলছে সেসব মামলার বিচার। জানা গেছে, সবগুলো মামলায় দোষী সাব্যস্ত হলে এক শতাব্দীরও বেশি সময় কারাভোগ করতে হবে সু চিকে।

উল্লেখ্য, প্রায় তিন দশক গৃহবন্দি থাকার পর ২০১০ সালে মুক্তি পাওয়া সু চি ২০১৫ সালের নির্বাচনে বিপুল ব্যবধানে জয় লাভ করেন। ২০২০ সালের নির্বাচনেও বিপুল ব্যবধানে জয়ী হয়ে সরকার গঠন করে তার দল এনএলডি। কিন্তু, নির্বাচনে কারচুপির অভিযোগে ২০২১ সালের ১ ফেব্রুয়ারি এক সামরিক অভ্যুত্থানের মাধ্যমে ক্ষমতা দখল করে দেশটির সামরিক বাহিনী। বন্দি করা হয় সু চিসহ তার দলের বিভিন্ন স্তরের হাজারো নেতাকর্মীকে। 

/এসএইচ


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply