পিরোজপুরে যুবলীগ কর্মীর কব্জি কাটার ঘটনায় ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে মামলা

|

পিরোজপুর প্রতিনিধি:

পিরোজপুরে যুবলীগ কর্মী নাদিম খানকে কুপিয়ে হাতের কব্জি কেটে ফেলার ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। মামলায় ইউপি চেয়ারম্যান, উপজেলা ভাইস-চেয়ারম্যানসহ ৩২ জনকে আসামি করা হয়। নাদিম খানের ফুপু তামান্না বাদী হয়ে শুক্রবার (১৪ জানুয়ারি) রাতে পিরোজপুর সদর থানায় এ মামলা দায়ের করে।

মামলায় কদমতলা ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান শিহাব হোসেন, তার ছোট ভাই ফারুক হোসেন, ভাইয়ের ছেলে পিরোজপুর সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান বায়েজীদ হোসেনসহ ৩২ জনকে নামীয় করে এবং অজ্ঞাত কয়েকজনকে আসামি করা হয়েছে।

জানা যায়, বৃহস্পতিবার (১৩ জানুয়ারি) সকালে সদর উপজেলার কদমতলা ইউনিয়নে যুবলীগ কর্মী নাদিম খানকে কুপিয়ে হাতের কব্জি কেটে ফেলে প্রতিপক্ষরা। আহত অবস্থায় নাদিমকে উদ্ধার করে পিরোজপুর সদর হাসপাতালে নিয়ে আসে স্থানীয়রা। পরে আশঙ্কাজনক অবস্থায় নাদিমকে প্রথমে খুলনা এবং পরে ঢাকা পঙ্গু হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। আহত যুবলীগ কর্মী নাদিম খান সদর উপজেলার তেজদাসকাঠী এলাকার নজরুল ইসলাম খানের পুত্র।

পিরোজপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোল্লা আজাদ হোসেন জানান, কব্জি কাটার ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। পুলিশ আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা করছে।


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply