১২ বছরের মেয়ের ঘুসিতে ভাঙছে গাছের গুড়ি, দুমড়ে মুচড়ে দিচ্ছে স্টিলের দরজা! (ভিডিও)

|

ছবি: প্রতীকী

বয়স সবেমাত্র ১২। কিন্তু এই বয়সেই ঘুসি দিয়ে ভেঙে ফেলছে শক্ত গাছের গুড়ি, কখনও বা তার ঘুসিতে দুমড়ে মুচড়ে যাচ্ছে স্টিলের দরজা! ১২ বছরের এভনিকা সাভাকাসের এমন কীর্তির ভিডিও ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়! খবর নিউজ এইটিনের।

বক্সিংয়ের দক্ষতা আর অকল্পনীয় ঘুসির জোরের কারণে মাত্র ১২ বছর বয়সেই রাশিয়ার বাসিন্দা এভনিকা পেয়েছে ‘বিশ্বের সবচেয়ে বেশি শক্তিশালী মেয়ে’র শিরোপা। বাবা রুস্ট্রাম সাভাকাসের কাছে বক্সিংয়ে প্রশিক্ষণ নিয়েছে এভনিকা।

৫ বছর আগে প্রথম শিরোনামে আসে এভনিকা, সেইসময় তার একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছিল, যেখানে ১ মিনিটের কম সময়ে ১০০টা বক্সিং পাঞ্চ মেরেছিল সে! তখন তার বয়স ছিল মাত্র ৮। যখন এভনিকা খুব ছোট, তখনই বাবা রুস্ট্রাম বুঝে গিয়েছিলেন, তার মেয়ে আর পাঁচটা মেয়ের থেকে আলাদা, আঁচ করতে পেরেছিলেন, মেয়ের বক্সিংয়ের দক্ষতা। সেইমত খুব অল্প বয়স থেকেই যথাযথ প্রশিক্ষণ দিতে থাকেন মেয়েকে।

সম্প্রতি এভনিকার দুটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে, একটিতে দেখা যাচ্ছে বক্সিং পাঞ্চে শক্ত গাছের গুঁড়ি ভেঙে ফেললো মেয়েটি, চোখে না দেখলে কল্পনাই করা যায় না! দেখুন সেই ভিডিওটি…


দ্বিতীয় ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, ঘুসি মেরে শক্ত স্টিলের দরজা দুমড়ে মুচড়ে ভেঙে দিলো এভনিকা! ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন

এভনিকার জানিয়েছেন, ‘আমি বক্সিং খুব ভালবাসি, যখন এক-একটা পাঞ্চ মারি, যে আওয়াজটা হয়, দারুণ লাগে! আমি যখন খুব তাড়াতাড়ি পাঞ্চিং করি, আমার পাও সেই ছন্দে তাল মেলায়।’
আরও পড়ুন: ৪০ বছর প্রেমের পর ধুমধাম করে বিয়ে, পাত্র দেখে তাজ্জব সবাই!
ইউএইচ/


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply