নৌকায় ভোট চাওয়া রাজনৈতিক অধিকার: প্রধানমন্ত্রী

|

নির্বাচনে ভোট চাওয়া রাজনৈতিক অধিকার বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বলেন, আমি একটি দলের সভাপতি। আমি নৌকায় ভোট চাইবো, এটা আমার রাজনৈতিক অধিকার। রাজনৈতিক দলের নেত্রী হিসেবে যেখানে যাবো, সেখানেই নৌকায় ভোট চাইব।

শনিবার সন্ধ্যায় গণভবনে আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সংসদের বৈঠকের উদ্বোধনী বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন। সাম্প্রতিক রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা ও দলীয় কর্মসূচী ঠিক করতে আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সংসদের এই বৈঠক। উন্নয়নশীল দেশের উত্তীর্ণ হওয়ার প্রাথমিক যোগ্যতা অর্জন করায় দলীয় সভাপতিকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান কেন্দ্রীয় নেতারা।

সূচনা বক্তব্যে আওয়ামী লীগ সভাপতি বলেন, দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনা নিয়ে কাজ করে বলেই আওয়ামী লীগের আমলে দেশের উন্নয়ন হয়। ক্ষমতায় থেকে দেশের উন্নয়ন না করে বিএনপি নিজেদের আখের গুছিয়েছে বলে অভিযোগ করেন প্রধানমন্ত্রী।

দলীয় নেতাদের ‍উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আগামী নির্বাচন যথাসময়ে হবে। অবশ্যই আমাদের সবাইকে জনগণের কাছে যেতে হবে। নৌকায় ভোট চাইতে হবে। মানুষকে বোঝাতে হবে। একমাত্র নৌকায় ভোট দিলেই তাদের উন্নতি হবে। আমরা সবাইকে বলবো, আমরা নৌকা মার্কায় ভোট চাই। দেশের উন্নয়ন করার সুযোগ চাই। মানুষের সেবা করা আমাদের কর্তব্য, সেই সেবা করার সুযোগ চাই।

নৌকাকে উন্নয়নের প্রতীক হিসেবে উল্লেখ করে তিনি অভিযোগ করেন, যারা দেশের উন্নয়ন চায় না তারা উন্নয়ন চোখে দেখে না। নিজেদের সম্পদের সর্বোচ্চ ব্যবহার করে দেশকে এগিয়ে নেয়ার কথাও বলেন প্রধানমন্ত্রী।

রোহিঙ্গা ইস্যুতে পুরো বিশ্বই বাংলাদেশের সাথে আছে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা মানবতার কারণে তাদের আশ্রয় দিয়েছি। আমাদের ভূমিকায় আন্তর্জাতিক বিশ্ব ভূয়সী প্রশংসা করেছে। সারাবিশ্ব এখন বাংলাদেশের সঙ্গে রয়েছে। এটা আমাদের একটি বড় অর্জন। আশ্রয় নেয়া এসব মানুষকে ফিরিয়ে নেয়ার বিষয়েও আলোচনা হচ্ছে।

যমুনা অনলাইন: টিএফ





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply