৬ বছর পর বাড়ি ফিরলেন মালালা

|

তালেবানের হামলার ৬ বছর পর দেশে ফিরে প্রথমবারের মতো নিজ শহর সোয়াত উপত্যকার মিনগোরায় গেলেন মালালা ইউসুফজাই। শনিবার কড়া নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে সেনাবাহিনীর একটি হেলিকপ্টারে করে পৌঁছান তিনি।

স্থানীয় বাসীন্দারা তার এ সফরকে স্বাগত জানিয়েছেন। এর আগে, চারদিনের সফরে, বুধবার রাতে ইসলামাবাদের বেনজির ভুট্টো আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পা রাখেন মালালা। দিনব্যাপী ব্যস্ত কর্মসূচির ফাঁকে প্রধানমন্ত্রী শহিদ খাকান আব্বাসীর সাথে দেখাও করেন তিনি।

পাকিস্তানে ফিরতে পারলেও মালালা তার নিজ বাড়িতে ফিরতে পারবেন কিনা তা শুক্রবার রাত পর্যন্তও নিশ্চিত ছিল না। কারণ খাইবার পাখতুনখাওয়া প্রদেশ এখনও জঙ্গিদের শক্তঘাঁটি। মালালার ফেরা উপলক্ষে সোয়াতে ব্যাপক নিরাপত্তাব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। মিনগোরা শহরে মালালার বাড়িতে যাওয়ার সব রাস্তা বন্ধ করে দিয়েছে পুলিশ।

বর্তমানে ২০ বছর বয়সী এই তরুণী একজন সক্রিয় মানবাধিকার কর্মী। নারী শিক্ষার প্রসারে কাজ করার অভিযোগে ২০১২ সালে মাত্র ১১ বছর বয়সে তাকে গুলি করে হত্যার চেষ্টা করে তালেবান। স্কুলে যাওয়ার সময় তালেবান যোদ্ধারা তার স্কুল বাসে উঠে জিজ্ঞেস করেন- মালালা কে? এর পর তাকে গুলি করে।

প্রথমে তাকে সেনাবাহিনীর হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়। পরবর্তী সময় বিমানে করে ব্রিটেনের বার্মিংহামে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে তিনি স্থায়ী হন সেখানেই। ২০১৪ সালে সর্বকনিষ্ঠ হিসেবে শান্তিতে নোবেল পান মালালা।









Leave a reply