‘আওয়ার আইকন আওয়ার প্রাইড’ স্লোগানে আইজিপির ছবি শেয়ার করছেন পুলিশ সদস্যরা

|

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ‘আওয়ার আইকন আওয়ার প্রাইড’ স্লোগান লেখা পুলিশে মহাপরিদর্শক বেনজীর আহমেদের ছবি শেয়ার করতে দেখা গেছে বাহিনীটির অনেক সদস্যকে। এই গ্রাফিক্যাল পোস্ট তাকে দেশমাতৃকার শ্রেষ্ঠ এক সন্তান উল্লেখ করার পাশাপাশি টেকসই নিরাপত্তার নেপথ্যের নায়ক হিসেবেও আখ্যায়িত করা হয়েছে। পোস্টের সঙ্গে পুলিশ সদস্যদের নানা রকম প্রশংসাও করতে দেখা গেছে।

এ নিয়ে জানতে চাইলে একাধিক পুলিশ সদস্য যমুনা নিউজকে জানান, সম্প্রতি আইজিপি বেনজীর আহমেদের বিরুদ্ধে মার্কিন নিষেধাজ্ঞার বিষয়টি তারা সহজভাবে নেননি। মূলত, এর প্রতিবাদে এবং আইজিপির প্রতি সম্মান প্রদর্শনের জায়গা থেকে সামাজিক মাধ্যমে পোস্ট শেয়ার করছেন তারা। পোস্ট শেয়ার করার জন্য বাহিনীর ভেতর থেকে কোনো নির্দেশনা নেই। স্বতঃস্ফূর্তভাবেই পুলিশ সদস্যরা এমন পোস্ট শেয়ার করছেন।

গত ১০ ডিসেম্বর আন্তর্জাতিক মানবাধিকার দিবসে মার্কিন পররাষ্ট্র দফতর ও রাজস্ব দফতর আলাদা বিবৃতিতে আইজিপি ও র‌্যাবের মহাপরিচালকসহ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সাত সদস্যের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা জারি করে। এ নিয়ে এরইমধ্যে সরকার ও রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে নানামুখী প্রতিক্রিয়া লক্ষ্য করা গেছে। আনুষ্ঠানিকভাবে এই ঘটনার নিন্দা জানিয়েছে র‍্যাব ও পুলিশ সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশন। সোমবার সকাল থেকে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে আইজিপির পক্ষে পুলিশ সদস্যদের পোস্ট দিতে দেখা গেছে।

পুলিশ সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশনের বিবৃতিতে বলা হয়েছে, বাংলাদেশ বিরোধী চক্র লবিস্ট নিয়োগ করে প্ররোচনা দেয়ায়, যুক্তরাষ্ট্র সরকার বাংলাদেশের পুলিশ কর্মকর্তা ও র‍্যাব কর্মকর্তাদের উপর নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে। সোমবার (১৩ ডিসেম্বর) পাঠানো প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, বৈশ্বিক সন্ত্রাসবাদ, আন্তঃদেশীয় অপরাধ দমন, সাইবার অপরাধসহ নানা ধরনের অপরাধ দমনে বাংলাদেশ পুলিশ ও যুক্তরাষ্ট্রের সংশ্লিষ্ট সংস্থাসমূহ একযোগে কাজ করে যাচ্ছে। এমন সৌহার্দপূর্ণ দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক বজায় থাকা অবস্থায় যুক্তরাষ্ট্র সরকারের অর্থ দফতর ও পররাষ্ট্র দফতর কর্তৃক বাংলাদেশের ইন্সপেক্টর জেনারেল অব পুলিশ ডক্টর বেনজীর আহমেদ’সহ ৭ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে যথাযথ যাচাই বাছাই ছাড়া নিষেধাজ্ঞা আরোপের ঘটনা অপ্রত্যাশিত ও অনাকাঙ্ক্ষিত।

আরও দেখুন: ‘বাংলাদেশ বিরোধী চক্রের লবিস্ট গ্রুপের প্ররোচনায় যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞা’

অন্যদিকে, র‍্যাব আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলনে জানিয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের অভিযোগ ভিত্তিহীন। মানবতা রক্ষায় র‍্যাবের আত্মত্যাগ অনেক বেশি। র‍্যাবের সাফল্যের কারণে জঙ্গিবাদ মোকাবেলা সফলতা পেয়েছে। সুন্দরবন দস্যুমুক্ত হয়েছে। দস্যুদের পুনর্বাসনে র‍্যাব সকল উদ্যোগ নিয়েছে। বিভিন্ন অভিযানের ফলে দেশের মানুষের আস্থা অর্জন করেছে র‍্যাব।

আরও দেখুন: ‘মানবাধিকার লুণ্ঠন নয়, রক্ষা করে র‍্যাব’





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply