কিন্তু আলোচনা হয় শুধু চাল নিয়ে: খাদ্যমন্ত্রী

|

খাদ্যমন্ত্রী অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম বলেছেন, “ভাত বাদে, খাবার টেবিলে থাকা একাধিক খাদ্যের দাম বেড়েছে। কিন্তু আলোচনা হয় শুধু চাল নিয়ে। অথচ এখন ভালো দাম পাচ্ছে কৃষক। তারপরও, ভোক্তা অধিকার রক্ষায় একাধিক কর্মসূচি হাতে নিতে যাচ্ছে সরকার।”

মঙ্গলবার রাজধানীতে নারীর নিরাপদ খাদ্য বিষয়ক আয়োজিত এক সেমিনারে গবেষকদের করা অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে এ কথা বলেন তিনি।

সেমিনারে গবেষকরা অভিযোগ জানিয়ে বলেছিলেন, সরকারের অব্যবস্থাপনায় মোটা চালের দাম ৫০ ভাগ বেড়েছে, যা অপ্রত্যাশিত।

অ্যাডভোকেট কামরুল বলেন, “সবশেষ বন্যার পর অসাধু ব্যবসায়ীদের কারনে খাদ্য সরবরাহ কিছুটা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে, কিন্তু এখন পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে। যে কোনো সময়ের চেয়ে ভালো দাম পাচ্ছেন ধান চাষীরা।

নারীর জন্য নিরাপদ খাবারের বিষয়ে খাদ্যমন্ত্রী বলেন, “মেয়েরা শুধু বাড়িতে বসে থাকবে, রান্না-বান্না করবে, সংসার দেখবে, মুফতি শফি সাহেবের এসব কথা এখন আর চলে না।”

এ সময় বক্তারা বলেন, খাবার বন্টন নিয়ে অনেক পরিবারে মানসিকতা বদলায়নি। প্রসবের ঝুঁকি এড়াতে সন্তানসম্ভবা নারীদের দেয়া হয় না পর্যাপ্ত খাবার। তাই অপুষ্টিতে ভোগে মা ও শিশু। তার ওপর বন্যার মত দুর্যোগ হলে পর্যাপ্ত খাবার পায় না অনেক অঞ্চলের মানুষ।

যমুনা অনলাইন: এফএইচ





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply