ভারতের ইতিহাসে প্রথম বামন ড্রাইভার

|

ছবি: সংগৃহীত।

৪২ বছর বয়সী শিবপালের উচ্চতা মাত্র ৩ ফুট। বিশেষ সিট ছাড়া গাড়ির স্টিয়ারিং-ও নাগালে পান না, ব্রেক পর্যন্ত পা পৌঁছানো তো অনেক দূরের কথা। তবে এই ছোট্টখাট্ট মানুষটিই গড়লেন ইতিহাস। ভারতে খর্বাকার সম্প্রদায়ের মধ্যে তিনিই প্রথম পেয়েছেন ড্রাইভিং লাইসেন্স।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজার পত্রিকার তথ্য বলছে, এর আগে কখনও এতো ছোট আকৃতির কাউকে ড্রাইভিং লাইসেন্স দেয়া হয়নি ভারতে। তবে অদম্য সাহস ও ইচ্ছে শক্তি দ্বারা এবার তা সম্ভব করে দেখিয়েছেন শিবপাল।

আরও পড়ুন: ভুল করে ২ শিশুকে করোনার টিকা অতঃপর হাসপাতালে ভর্তি

সংবাদমাধ্যমকে শিবপাল বলেন, যখনই বউয়ের সাথে বাইরে বের হতাম, লোকে খারাপ কথা বলতো আমাদের। ওই সময় ঠিক করলাম, গাড়ি কিনব। গাড়িতে করেই বউকে নিয়ে বের হবো।

তিনি আরও বলেন, আমি প্রতিবন্ধী বলে কেউ কাজ দিত না আমায়। পরে এক বন্ধু আমাকে একটি বেসরকারি সংস্থায় কাজ দেন। ওখানেই গত ২০ বছর ধরে কাজ করছি। আর এবার নিজের একটা বড় স্বপ্ন পূরণ করতে পেরেছি।

শিবপাল জানান, লাইসেন্স পেতে এখন তার মতো অনেকেই যোগাযোগ করছেন ফোনে। তারাও লাইসেন্স পেতে চান। এবার নিজেই খর্বাকার মানুষদের জন্য গাড়ি চালানোর একটি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র খুলতে চান শিবপাল।

এসজেড/





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply