ছাত্রীদের বিবস্ত্র করলেন উন্মাদ হোস্টেল সুপার

|

এ যেন এক বদ্ধ উন্মাদ! তা হলে এমন কাণ্ড ঘটান কোনো হোস্টেল সুপার? ওয়াশরুমের বাইরে স্যানিটারি ন্যাপকিন পড়ে থাকার অপরাধে ৫০ ছাত্রীকে বিবস্ত্র করে বসলেন এক ক্ষ্যাপাটে হোস্টেল সুপার। কোন ছাত্রীর ঋতুস্রাব হয়েছে সেটিই নাকি খুঁজে বের করতে এ কাজ করেছেন তিনি! ভারতের মধ্যপ্রদেশের ড. হারি সিং গৌর ইউনিভার্সিটিতে এ ঘটনা ঘটেছে ।

চলার পথে হোস্টেলের ওয়াশরুমের বাইরে স্যানিটারি ন্যাপকিন পড়ে থাকতে দেখেই তেলেবেগুনে জ্বলে ওঠেন ওই সুপার। পরে হোস্টেলের সব শিক্ষার্থীকে একটি রুমে ডেকে এনে নগ্ন হওয়ার নির্দেশ দেন। উদ্দেশ্য যার ‍ঋতুস্রাব হয়েছে তাকে খুঁজে বের করে আরও কঠোর শাস্তি দিবেন। ন্যাক্কারজনক এ ঘটনায় রাজ্যজুড়ে তীব্র প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে। এমন বদ্ধ উন্মাদ হোস্টেল সুপারের অপসারণ ও শাস্তি দাবি করেছেন অনেকে।

এ ঘটনাকে ‘দুর্ভাগ্যজনক ও নিন্দনীয়’ উল্লেখ করে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি আরপি তিওয়ারির ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীদের কাছে ক্ষমা চেয়েছেন। বলেন, সব শিক্ষার্থী আমার মেয়ের মতো এবং আমি এ ব্যাপারে ক্ষমা চাচ্ছি। আমি আশ্বস্থ করতে চাই, এ ব্যাপারে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

যমুনা অনলাইন: টিএফ





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply