উত্তাল সাগরে আনন্দে মেতেছেন আটকে পড়া পর্যটকরা

|

ঝুঁকি নিয়েই সাগরে নামছেন পর্যটকরা।

কক্সবাজার প্রতিনিধি:

বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় জাওয়াদ দুর্বল হয়ে গভীর নিম্নচাপে রূপ নিয়েছে। এর প্রভাবে সাগরও উত্তাল। এর ফলে সকল ধরনের ফিশিং ট্রলারকে উপকূলের কাছাকাছি থাকার নির্দেশ দিয়েছে আবহাওয়া অফিস। তবে সেন্টমার্টিনে রোববার (৫ ডিসেম্বর) থেকে জাহাজ চলাচল বন্ধ হওয়ায় সেখানে আটকে পড়েছে হাজারের বেশি পর্যটক।

ঘূর্ণিঝড় জাওয়াদের প্রভাবে সোমবার (৬ ডিসেম্বর) ভোর রাত থেকেই কক্সবাজারে গুড়ি গুড়ি বৃষ্টি শুরু হয়েছে। এতে স্বাভাবিক জীবনযাত্রা ব্যহত হচ্ছে। তবে সেন্টমার্টিনে আটকা পড়া পর্যটকদের কোনো সমস্যা হচ্ছে না বলে জানিয়েছেন সেন্টমার্টিন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নুর আহমদ। কিছু পর্যটক কেবল ফিরতে উদগ্রীব হয়ে রয়েছেন বলে জানান তিনি।

আরও পড়ুন: মেয়র আব্বাস আলীর ৩ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর

এদিকে, সাগর উত্তাল ও সতর্কতা সংকেত থাকার পরও পর্যটকরা ঝুঁকি নিয়ে সাগরে নেমে আনন্দে মেতে রয়েছেন। লাইফগার্ড কর্মীরা বলছেন, সতর্ক থাকার কথা থাকলেও সাগরে নামছেন পর্যটকরা। তবে সৈকতের জেট স্কী ও টিউব তুলে দেয়া হয়েছে।

কক্সবাজার আবহাওয়া অফিসের সহকারী আবহাওয়াবিদ মনোয়ার হোসেন জানিয়েছেন, ঘূর্ণিঝড় জাওয়াদ দুর্বল হয়ে গভীর নিম্নচাপে রূপ নিয়েছে। এটি আরও দুর্বল হয়ে যেতে পারে। তবে চার সমুদ্রবন্দরকে দেয়া তিন নম্বর স্থানীয় সতর্কতা সংকেত এখনও বলবৎ রয়েছে।

এসজেড/


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply