সু চির ৪ বছরের কারাদণ্ড

|

ছবি: সংগৃহীত

৪ বছরের কারাদণ্ড পেলেন মিয়ানমারের ক্ষমতাচ্যুত রাষ্ট্রীয় উপদেষ্টা অং সান সু চি। করোনা বিধিনিষেধ অমান্য করায় সোমবার এ শাস্তি ঘোষণা করলেন সামরিক আদালত।

সু চির বিরুদ্ধে ভোট জালিয়াতি, দুর্নীতি, সরকারি গোপনীয়তা আইন লঙ্ঘন ও লাইসেন্সবিহীন ওয়াকিটকি রাখার ১১টি মামলা রয়েছে। যদিও প্রথম থেকেই সব অভিযোগ অস্বীকার করছেন সু চি। আদালতে সেসব প্রমাণিত হলে ৭৬ বছরের এই রাজনীতিককে ভোগ করতে হবে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড। এছাড়া সাবেক প্রেসিডেন্ট উইন মিন্তকেও একই অভিযোগে ৪ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত।

আরও পড়ুন: নাগাল্যান্ডের বিতর্কিত অভিযানে ১৫ মৃত্যু, ১৪৪ ধারা জারি

চলতি বছর ১ ফেব্রুয়ারি সেনা অভ্যুত্থানের মাধ্যমে মিয়ানমারের ক্ষমতা দখলে নেয় সেনাবাহিনী। এসময় থেকেই গৃহবন্দি দেশটির সাবেক রাষ্ট্রীয় উপদেষ্টা ও নোবেলজয়ী সু চি। জান্তা শাসনের বিরুদ্ধে হওয়া বিক্ষোভ-প্রতিবাদে প্রাণ হারিয়েছেন ১২ শতাধিক মানুষ, বন্দি হন কমপক্ষে ১০ হাজার।

ইউএইচ/


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply