পানির নিচে ডাইভিং করলো সান্তা ক্লজ!

|

ছবি: সংগৃহীত

উপহারের ঝোলা কাঁধে লাল সাদা পোশাকের চিরাচরিত সেই সান্তা এবার পানির নিচে করছে ডাইভিং। সান্তার ডাইভিংয়ের এ দৃশ্য হাঙ্গেরির রাজধানী বুদাপেস্টের। দর্শনার্থীদের আনন্দ দিতেই ভিন্নধর্মী এমন উদ্যোগ। মূলত ক্রিসমাস উপলক্ষে দেশটিতে তৈরি করা হয়েছে বিশালাকার অ্যাকুরিয়াম।

সান্তা ক্লজের সাজে সেগুলো সাজানোর কাজ করছেন দুই ডাইভার। যারা হরহামেশাই দাপিয়ে বেড়ান সাগরের তলদেশ।

ডাইভার ইস্তভান দেরেস বলেন, প্রতিবছরই সান্তা ক্লজ সেজে ডাইভিং করি। ডাইভিং আমাদের জন্য খুবই সাধারণ কাজ। তবে সান্তা সাজার মধ্যে আলাদা একটা ভালো লাগা কাজ করে। বছরে এই একটি দিনই আমাদের এই সুযোগ মেলে। তাই এর বিশেষত্ব রয়েছে।

মূলত, ক্রিসমাস উপলক্ষে সাগরের আদলে তৈরি বিশালাকার অ্যাকুরিয়ামটিকে সাজিয়ে তোলার উদ্দেশ্যেই তাদের এ যাত্রা। আর দর্শনার্থীদের কাছে সাজসজ্জার দৃশ্যটিও আকর্ষণীয় করে তুলতেই সেজেছেন সান্তা। বিশেষ করে শিশুদের নিখাদ আনন্দের স্বাদ দেয়াই এর প্রধান লক্ষ্য।

আরও পড়ুন: পশ্চিমবঙ্গে ঘূর্ণিঘঝড় জাওয়াদের প্রভাবে ঝড় ও বৃষ্টি

তবে ডাইভিং এর উপযুক্ত পোশাকের বদলে এমন পোশাক খানিকটা কষ্টসাধ্য করে তোলে কাজটি। এছাড়াও অ্যাকুরিয়ামটিতে সামুদ্রিক নানা মাছের সাথে হাঙরের উপস্থিতি এ ঝুঁকি আরও বাড়িয়ে দেয়।

ইস্তভান দেরেস আরও বলেন, ডাইভিংয়ের পোশাক ও বাকি জিনিসপত্রগুলো বহন করা এত সহজ না। ওপর থেকে সান্তা পোশাকটার বেশ ঢিলাঢালা ধরণের হয়। যাতে ডাইভিং আরেকটু কষ্টসাধ্য হয়ে ওঠে। সবমিলিয়ে আমাদের একটু বেশিই সতর্ক থাকতে হয়।

আর কিছুদিন পরেই আসছে খ্রিস্টধর্মের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব বড়দিন। পশ্চিমা দেশগুলোতে মাসখানেক আগে থেকেই শুরু হয়ে যায় আয়োজন। তবে সম্প্রতি ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্টের হানায় উদযাপন নিয়ে খানিকটা শঙ্কা দেখা দিয়েছে।


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply