বিতর্কিত সিদ্ধান্তে বেঁচে গেলেন আজহার আলী

|

আলট্রা এজে স্পাইক ধরা পড়া সত্ত্বেও নট আউট আজহার আলী!

তাইজুল ইসলামের স্পিন ঘূর্ণিতে পাকিস্তানের দুই ওপেনার ফিরে গেলেও আম্পায়ারের বিতর্কিত সিদ্ধান্তে বেঁচে গেলেন আজহার আলী।

তাইজুলের ইসলামের ফুলার লেংথের বলে ফ্রন্টফুট ডিফেন্সিভ স্ট্রোক খেলতে গিয়েছিলেন আজহার আলী। কিন্তু বলটি ঘুরে ব্যাট ছুঁইছুঁই করে চলে যায় উইকেটকিপার লিটন দাসের হাতে। কট বিহাইন্ডের জোরালো আবেদনে সাড়া দেননি আম্পায়ার। বাংলাদেশ নেয় ইনিংসে তাদের দ্বিতীয় রিভিউ। রিপ্লেতে দেখা যায়, বল ব্যাটের কাছে থাকা অবস্থায় যে আওয়াজ শোনা গিয়েছে, সেটি মাটিতে ব্যাট লাগার শব্দের চেয়েও ছিল বেশি। তাছাড়া সে সময় কয়েকটি স্পাইকও দেখা গিয়েছিল। তবে স্পাইকের সংখ্যাও খুবই কম থাকলেও কয়েকটি স্পাইকের উপস্থিতিতে পরিষ্কার হয়নি আদৌ বল ব্যাট ছুঁয়েছিল কি না। তবে দৃশ্যমান স্পাইকের কারণে, আজহার আলীর সাজঘরেই ফিরে যাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু থার্ড আম্পায়ার দিলেন নট আউটের সিদ্ধান্ত।

এই বিতর্কিত সিদ্ধান্তের সাথে অনেকটাই মিলে যায় গতকাল মুম্বাই টেস্টে ভিরাট কোহলির আউট নিয়ে থার্ড আম্পায়ারের সিদ্ধান্তটি। সেখানেও বল কোহলির ব্যাট ছুঁয়েছিল কি না তা পরিষ্কার হয়নি। অন ফিল্ড আম্পায়ারের সিদ্ধান্ত ছিল আউট। বেনিফিট অব ডাউট ব্যাটারের পক্ষে যাওয়ার রীতি থাকলেও তখন অন ফিল্ড আম্পায়ারের সিদ্ধান্তই বহাল রাখা হয়। আর আজও সেরকমই ঘটলো। আলট্রা এজে স্পাইকের উপস্থিতি কম থাকায় অন ফিল্ড আম্পায়ারের নট আউটের সিদ্ধান্তই থেকে গেল বহাল। বিতর্কিত সিদ্ধান্তে বেঁচে গেলেন আজহার আলী।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply