পণ্য রফতানিতে চাঙাভাব

|

২০২১-২০২২ অর্থবছরের প্রথম পাঁচ মাসে রপ্তানি আয় বেড়েছে ২৪ দশমিক ২৯ শতাংশ। যা চলতি অর্থ বছরের লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ১৩ দশমিক ২৭ শতাংশ বেশি। রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরো (ইপিবি) সম্প্রতি তাদের ওয়েবসাইটে যে তথ্য প্রকাশ করেছে, তাতে জুলাই-নভেম্বরে বাংলাদেশ থেকে ১৯৭৯ কোটি ডলার সমমূল্যের পণ্য রপ্তানি হয়েছে বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

এই রপ্তানী আয় বৃদ্ধির হার করোনা মহামারীর জড়তা কাটিয়ে বাংলাদেশের পণ্য রপ্তানিতে চাঙাভাবের বার্তা দিচ্ছে।

তৈরি পোশাক খাত বরাবরের মতোই রপ্তানি প্রবৃদ্ধির এই ধারায় প্রধান ভূমিকা রেখেছে। ইপিবির প্রতিবেদন অনুযায়ী, চলতি অর্থবছরের প্রথম পাঁচ মাসে রপ্তানি আয়ে প্রথম অবস্থান ধরে রেখেছে তৈরি পোশাক খাত। প্রায় ২৩ শতাংশ প্রবৃদ্ধিসহ এ খাত থেকে রপ্তানি আয় এসেছে ১৫৮৫ কোটি ৬২ লাখ ডলার।

উল্লেখ করার মতো রপ্তানির আয় বেড়েছে কৃষিজাত পণ্যে। এসময়ে কৃষিজাত পণ্য রপ্তানি হয়েছে ৫৫ কোটি ৬৪ লাখ ডলারের। যা আগের অর্থবছরের একই সময়ের তুলনায় ২৪ দশমিক ৩৭ শতাংশ বেশি। চামড়া ও চামড়াজাত পণ্য রপ্তানি হয়েছে ৪৫ কোটি ৬৮ লাখ ডলারের। এক্ষেত্রে প্রবৃদ্ধি হয়েছে ২৭ দশমিক ৪১ শতাংশ।

এ সময়ে মাছ রপ্তানি হয়েছে ২৮ কোটি ৬৮ লাখ ডলারের। যা গতবছরের একই সময়ের তুলনায় ২৩ দশমিক ৩৯ শতাংশ বেশি।


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply