গাইবান্ধায় ইউপি নির্বাচনে জয়ী হলেন স্বামী-স্ত্রী

|

বিজয়ী দম্পতি গোলজার হোসেন ও শাহিদা বেগম।

গাইবান্ধা প্রতিনিধি:

তৃতীয় ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার দুটি ইউনিয়ন থেকে সদস্য পদে স্বামী গোলজার হোসেন ও সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে স্ত্রী শাহিদা বেগম নির্বাচিত হয়েছেন। এর মধ্যে বেলকা ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের সাধারণ সদস্য (মেম্বার) পদে গোলজার হোসেন আর দহবন্দ ইউনিয়নের ৭, ৮ ও ৯নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে বিজয়ী হন স্ত্রী শাহিদা বেগম।

গত রবিবার (২৮ নভেম্বর) অনুষ্ঠিত নির্বাচনে অংশ নিয়ে গোলজার হোসেন তালা প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করেন, আর শাহিদা বেগম প্রতিদ্বন্দিতা করেন মাইক প্রতীকে। ভোট গননা শেষে সংশ্লিষ্ট কেন্দ্রের প্রিজাইডিং কর্মকর্তারা তাদের বিজয়ী ঘোষণা করেন।

ইউপি নির্বাচনে স্বামী-স্ত্রী দুজনের জয়ের বিষয়টি জানাজানির পর এলাকাজুড়েই চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। ভোট যুদ্ধে জয়ী হতে পের খুশি গোলজার হোসেন ও স্ত্রী শাহিদা বেগমসহ তাদের পরিবারের লোকজন। স্বামী-স্ত্রী উভয়েই নির্বাচিত হওয়ায় দুই গ্রামের মানুষের মধ্যে বইছে আনন্দের জোয়ার।

উল্লেখ্য, সতেরো বছর আগে আমজাদ হোসেন দহবন্দ ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের ধুমাইটারি গ্রামের শাহিদা বেগমকে দ্বিতীয় বিয়ে করেন। বিয়ের পর থেকেই শ্বশুড় বাড়িতে স্ত্রী শাহিদা বেগকে রেখে দেন গোলজার হোসেন। দাম্পত্য জীবনে তাদের এক সন্তান রয়েছে।

সদস্য পদে বিজয়ী গোলজার হোসেন বলেন, বিয়ের পর থেকে বাবার বাড়িতে থাকায় আমার স্ত্রী শাহিদা বেগম দহবন্দ ইউপির ভোটার। দুই ইউনিয়নের মানুষের কাছে জনপ্রিয়তার কারণে আলোচনা করে দুজনেই নির্বাচনে অংশ নেই। মানুষ আমাদের ভালোবেসে তাদের মূল্যবান ভোট দেয়ায় প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের পরাজিত করতে পেরেছি। এই জয়ে আমরা দুই ইউনিয়নবাসীর প্রতি কৃতজ্ঞ। নিজেদের জন্য নয়, সবসময় মানুষের পাশে থাকাসহ এলাকার উন্নয়নমূলক কাজ করতে চাই।

বিজয়ী শাহিদা বেগম বলেন, মানুষ ভোট দিয়ে তাদের সেবা করার সুযোগ দিয়েছেন। জনগণের দেয়া এ দায়িত্ব সঠিকভাবে পালন করতে চাই। বিশেষ করে নারীদের আত্মনির্ভরশীল হিসেবে গড়ে তোলাসহ তাদের কল্যাণ এবং এলাকার সার্বিক উন্নয়নে কাজ করতে চাই। এজন্য সর্বাত্মক সহযোগিতাসহ এলাকার মানুষের কাছে দোয়া চেয়েছেন তিনি।


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply