পাকিস্তানের তুলনায় যতটুকু পিছিয়ে বাংলাদেশের পেসাররা

|

ছবি: সংগৃহীত

বাংলাদেশের উইকেটে নাকি পেইস বোলাররা অকার্যকর। অথচ এমন কন্ডিশনে চট্টগ্রাম টেস্টে পাকিস্তানি পেসাররা নিয়েছেন ১৬ উইকেট। অন্যদিকে টেস্টের চতুর্থ দিন পর্যন্ত বাংলাদেশের পেসারদের ঝুলিতে উইকেট সংখ্যা মাত্র ২টি।

চট্টগ্রাম টেস্টে দুই ইনিংসে ২ বার পাঁচটি করে উইকেট পেয়েছেন পাকিস্তানের দুই ফাস্ট বোলার। চট্টগ্রাম টেস্টের দ্বিতীয় ইনিংসে শাহীন আফ্রিদি নিয়েছেন পাঁচ উইকেট। ছোট টেস্ট ক্যারিয়ারে এটি নিয়ে চতুর্থবার পাঁচ উইকেট সংগ্রহ করলেন তিনি। যার মধ্যে তিনটি-ই আবার এ বছর। এই টেস্টেই প্রথম ইনিংসে ৫ উইকেট নিয়েছেন হাসান আলি।

২০২১ সালে পাকিস্তানের পেস বোলাররা ইনিংসে পাঁচ উইকেট নিয়েছেন ৮ বার। হাসান আলি একাই নিয়েছেন ৫ বার। আর শাহীন নিয়েছেন ৩ বার। অথচ গত ৮ বছরে ইনিংসে পাঁচ উইকেট নিতে পারেননি কোনো বাংলাদেশি পেসার।

আরও পড়ুন: ঢাকা টেস্টেই ফিরছেন সাকিব!

জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামের পিচে পাকিস্তানের পেস বোলাররা গড়ে প্রতি ঘণ্টায় ১৩৪.৫ কিমি গতিতে বল করে গেছেন। আর বাংলাদেশের পেসারদের গড় গতি ছিল ঘণ্টায় ১২৯.৫ কিমি।

২০০৬ সালের পর থেকে এখন পর্যন্ত বাংলাদেশের মাটিতে পেসারদের সর্বাধিক উইকেট নেয়া ম্যাচগুলোতে কোথাও নেই বাংলাদেশের নাম। তাইতো ২০২১ সালে এক ক্যালেন্ডার ইয়ারে এখন পর্যন্ত ৮৩ উইকেট নেয়া শাহীন আফ্রিদি-হাসান আলি জুটির সাথে ১০ উইকেট নেয়া রাহী-ইবাদাত জুটির প্রতিযোগিতাটাও অসম।


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply