ছোটবেলায় বাবার চরিত্র নিয়ে নানা কথা শুনে অবসাদে ভুগতাম: কুমার শানুর কন্যা

|

কুমার শানুর মেয়ে শ্যানন কুমার শানু। ছবি: সংগৃহীত।

কুমার শানুর বৈবাহিত জীবন বেশ বিতর্কিত। ছয় মাসের অন্তঃস্বত্ত্বা স্ত্রীকে ডিভোর্স দিয়ে ওই সময় প্রেমিকাকে বিয়ে করায় ভারতীয় এই সঙ্গীত শিল্পীর সমর্থকরাও ক্ষেপেছিলেন তার বিরুদ্ধে। তবে সেসব এখন অতীত। কুমার শানুর মেয়ে শ্যানন কুমার শানু এখন দাপিয়ে বেড়াচ্ছেন মার্কিন মুলুক। তিনি একজন মার্কিন-ভারতীয় গায়িকা হিসেবে মাত্র ১৮ বছর বয়সেই পেয়েছেন ব্যাপক সফলতা।

তবে ছোটবেলায় বাবা-মাকে নিয়ে অনেক কথা শুনতে হয়েছে তাকে। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজার পত্রিকাকে দেয়া একটি সাক্ষাৎকারে এ নিয়ে মুখ খোলেন কুমার শুনুর তৃতীয় স্ত্রীর কন্যা শ্যানন।

তিনি বলেন, আমার বাবা-মাকে নিয়ে বিভিন্ন কথা শুনতে হত। মানুষের সমালোচনায় আঘাত পেতাম। সেই সময়ে বয়স কম ছিল বলে এক কান দিয়ে শুনে অন্য কান দিয়ে বার করে দিতে শিখিনি। তাই একটা সময়ে খুবই মানসিক সমস্যায় ভুগেছি।

শ্যানন আরও বলেন, পরিবারের পক্ষ থেকে সমর্থন ছিল বলেই ধীরে ধীরে অন্ধকার থেকে আলোয় ফিরতে পেরেছি। তারাই আমায় নিজের ক্ষমতা উপলব্ধি করতে শিখিয়েছেন। আমার ধারণা, সময়ের সাথে সাথে সমালোচনা, বিতর্ক, ট্রোলিং ইত্যাদির সম্মুখীন হতে শিখেছি আমি। কাছের মানুষের কাছ থেকে সমালোচনা শুনলে সেটাকে এখন নিজের উন্নতিতে কাজে লাগাই।

উল্লেখ্য, এখন পর্যন্ত তিনটি বিয়ে করেছেন কুমার শানু। তার প্রথম স্ত্রী ছিলেন রীতা ভট্টাচার্য। তবে স্বামীর পরকীয়ার কথা জানতে পেরে ১৯৯৪ সালে তাকে ডিভোর্স দেন রীতা। সেই সময় ছয় মাসের অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন তিনি। এমনকি ছেলে জানের সাথেও ২৭ বছর ধরে কোনো সম্পর্ক ছিল না কুমার শানুর।

ওই সময় অভিনেত্রী মীনাক্ষি শেষাদ্রির সাথে কুমার শানুর অবৈধ সম্পর্ক নিয়ে সমালোচনার সৃষ্টি হয়। পরে এই অভিনেত্রীর সাথেই ১৯৯৭ সালে বিয়ে করেন গায়ক। তবে আবারও প্রেমে জড়ান অন্য নারীর সাথে। বিয়ের কয়েক বছর পরে আলাদা হয়ে যান দু’জনে। পরবর্তীকালে সালোনি ভট্টাচার্য্যকে বিয়ে করেন কুমার শানু। বর্তমানে সালোনির সাথেই আছেন কুমার শানু। শ্যানন সালোনি-কুমার শানুরই মেয়ে।


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply