মায়ের প্রেমিকের দ্বারা ধর্ষণের শিকার কিশোরী, মা বললো যা করেছে মেনে নাও!

|

ছবি: প্রতীকী

মায়ের বৃদ্ধ প্রেমিকের কাছে ধর্ষণের শিকার হয়েছেন এক কিশোরী। ওই ভুক্তভোগী কিশোরী যখন এই ঘটনার বর্ণনা তার মায়ের কাছে দিচ্ছিল তখন তার মায়ের উত্তর ছিল, যা করেছে মেনে নাও! ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের মহারাষ্ট্রে। খবর নিউজ এইটিনের।

খবরে বলা হয়, নিজের ওপর হওয়া ন্যাক্কারজনক অত্যাচারের বিবরণ দিয়েছেন ওই ভুক্তভোগী কিশোরী। তার বাবা-মা ব্যক্তিগত মতভেদের কারণে আলাদা থাকে। বাবার থেকে আলাদা হওয়ার পর মেয়েটি তার মা ও ভাইয়ের সঙ্গে থাকে। ধর্ষক প্রৌঢ়ের সঙ্গে মেয়েটির মায়ের বেশ কিছুদিন ধরেই সম্পর্ক রয়েছে। ২০২০ সালের অগাস্ট মাসে ওই ধর্ষণে অভিযুক্ত ব্যক্তি তাদের বাড়িতে এসেছিল। সেদিনই তার মা তার ভাইকে এক আত্মীয়ের বাড়িতে পাঠিয়ে দিয়েছিল।

টাইমস অফ ইন্ডিয়ার রিপোর্ট অনুযায়ী অভিযুক্ত সেই সময়ে ওই কিশোরীর সঙ্গে যৌন সম্পর্ক স্থাপন করে। যখন মেয়েটি তার সঙ্গে হওয়া ঘৃণ্য ঘটনার বিবরণ দেয়, সেই সময়ে তার মা তাকে বলে সে যা করেছে মেয়েটি যেনো সবকিছু মেনে নেয়। এই ঘটনার পরেও অভিযুক্ত তাকে আরও দুবার ধর্ষণ করেছে। পাশাপাশি তাকে হুমকিও দেয় এই ঘটনা কাউকে না বলার জন্য। এই অত্যাচার থেকে বাঁচতে মেয়েটি বাড়ি থেকে পালিয়েও যায় কিন্তু কোথাও থাকার জায়গা না পাওয়ায় মেয়েটিকে আবার বাড়ি ফিরে আসতে হয়।

খবরে আরও বলা হয়, এরপর এই ধর্ষণের ঘটনা লুকিয়ে মা নিজেই কিশোরী মেয়ের বিয়ের ব্যবস্থা করতে থাকে। এক যুবকের সাথে বিয়েও একরকম ঠিক হয়। তারপর মেয়েটি চাইল্ড হেল্প লাইনের ফোন নম্বরে ফোন করে। তারপর তাকে বাঁচানো হয়।

ভারতে বর্তমানে শিশুদের বিরুদ্ধে অপরাধের আইন পকসো অনুযায়ী কিশোরী মেয়েটির মা ও তার প্রেমিককে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাদের আদালতে তোলার পর পুলিশি হেফাজত দেয়া হয়েছে। মহারাষ্ট্রে নারীদের বিরুদ্ধে অপরাধের এই নজিরবিহীন ঘটনার কথা শুনে মানুষ আতঙ্কিত হয়ে পড়েছে।

ইউএইচ/


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply