বাংলাদেশের বিপর্যয়ে টেস্টে আসলো ভারসাম্য

|

আবারও মুশফিকের ব্যাটের দিকেই তাকিয়ে বাংলাদেশ। ছবি: সংগৃহীত

পাকিস্তানের বিরুদ্ধে চট্টগ্রাম টেস্টে তৃতীয় দিনের খেলা শেষ করেছে বাংলাদেশ ৪ উইকেট হারিয়ে। পাকিস্তানের চেয়ে ৮৩ রানে এগিয়ে থাকা অবস্থায় আগামীকালের প্রথম সেশনই যেন অনেকটাই নির্ধারণ করে দেবে চলমান টেস্টের ফলাফল। তবে তার আগ পর্যন্ত পাকিস্তান দুর্দান্ত বোলিং করে ফিরে এসেছে ম্যাচে। টেস্টে তাই বিরাজ করছে দারুণ ভারসাম্য।

আলোকস্বল্পতার কারণে নির্ধারিত সময়ের কিছুটা আগেই দিনের খেলা শেষ করার সিদ্ধান্ত নেন দুই আম্পায়ার। শাহিন আফ্রিদির বোলিং তোপে মাত্র ১৫ রানের ৩ এবং ২৫ রানে ৪ উইকেট হারানো বাংলাদেশ দেশ ৯ ওভার পার করেছে আর কোনো ধরনের বিপদ ছাড়াই। মুশফিকুর রহিম ও অভিষিক্ত ইয়াসির আলি রাব্বির জুটিতে মাত্র ১৪ রান এসেছে। তবে শাহিন আফ্রিদি-হাসান আলীদের এই শেষ বিকেলে উইকেট বঞ্চিত রেখে ম্যাচেও বাংলাদেশকে ভালোভাবেই টিকিয়ে রেখেছেন এই দুই ব্যাটার। প্রথম ইনিংসের ৪৪ রানের লিডের সাথে এখন মহা গুরুত্বপূর্ণ দ্বিতীয় ইনিংসের প্রতিটি রান।

আরও পড়ুন: বিপর্যয়ে বাংলাদেশ; নেই ৩ উইকেট

তৃতীয় দিনের খেলার শুরুতে পাকিস্তান দারুণ অবস্থানে থাকলেও তাইজুল ইসলামের বোলিং তোপে হুড়মুড়িয়ে ভেঙে পড়ে তাদের প্রথম ইনিংস। কেবল ৭ উইকেটই নয়, ৪৪ ওভার বল করার দারুণ সহিষ্ণুতা তিনি দেখিয়েছেন বলেই পাকিস্তান স্বচ্ছন্দ্যে খেলতে পারেনি আজ সারাদিনের কোনো সেশনেই।

আরও পড়ুন: ৭ উইকেট নিয়ে যতগুলো রেকর্ড গড়লেন তাইজুল

আবিদ আলী দারুণ এক সেঞ্চুরি করে বাংলাদেশের ইনিংসের সাথে ব্যবধান কমানোর চেষ্টা করেছেন। টেল এন্ডাররাও কিছুটা সহযোগিতা করেছে এ কাজে। তবে বোলিং করতে নেমে শাহিন আফ্রিদির কল্যাণে আবারও মাঠে নিজেদের কিছুটা আধিপত্য প্রতিষ্ঠা করতে পেরেছে পাকিস্তান। মুশফিক ও ইয়াসিরের ব্যাটে আর কোনো বিপদ না ঘটলে ভারসাম্য ফিরে আসে ম্যাচে। ছুরির অগ্রভাগে গেথে থাকা ম্যাচে আহত হতে পারে যেকোনো পক্ষই।


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply