‘ওমিক্রন’ ঠেকাতে সতর্ক অবস্থানে বাংলাদেশ

|

ছবি: সংগৃহীত।

করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট ‘ওমিক্রন’ ঠেকাতে সতর্ক অবস্থানে বাংলাদেশ। এরই মধ্যে জোরদার করা হয়েছে সব বন্দরের নিরাপত্তা।

রোববার (২৮ নভেম্বর) স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানিয়েছে, টানা একমাস ধরে দেশে করোনার সংক্রমণ নিম্নমুখী, শতকরা হিসেবে তা দেড় শতাংশের মত। কমেছে মৃত্যুর সংখ্যাও। সংক্রমণের হার নিম্নমুখী হলেও আত্মতুষ্টিতে ভুগছে না সরকার।

এরই মধ্যে দক্ষিণ আফ্রিকায় ধরা পড়া নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রন ছড়িয়ে পড়েছে ইসরায়েল, যুক্তরাজ্য, জার্মানি, ইতালি, নেদারল্যান্ডসহ অনেক দেশে। ফলে দক্ষিণ আফ্রিকার সাথে বিমান যোগাযোগ স্থগিত করেছে বেশকিছু দেশ। নতুন এই ভ্যারিয়েন্ট নিয়ে সতর্ক অবস্থানে বাংলাদেশও।

এদিকে ওমিক্রন শনাক্ত দেশগুলোর সাথে যোগাযোগ বন্ধ করার পরামর্শ দিয়েছে জাতীয় কারিগরি কমিটি। প্রস্তাবে বলা হয়েছে, দক্ষিণ আফ্রিকাসহ সংক্রমিত দেশগুলো থেকে আসা সবাইকে ১৪ দিনের প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে রাখতে হবে।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, নতুন ধরণটি আগের যে কোনটির চেয়ে দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে। আবার এর প্রতিরোধে টিকার কার্যকারিতাও প্রমাণিত না। তাই এটি মোকাবিলায় বাড়তি নজরের পরামর্শ কারিগরি কমিটির।

আরও পড়ুন: ওমিক্রন নিয়ে নির্দেশনা দিতে বিদেশ যাওয়ার মাঝপথেই দেশে ফিরলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী

জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটি সভাপতি অধ্যাপক মোহাম্মদ সহিদুল্লা বলেন, পরিস্থিতি সামলাতে দক্ষিণ আফ্রিকাসহ বিদেশ ফেরত যাত্রীদের ব্যাপারে সরকারকে তৎপর হওয়ার হতে বলা হয়েছে।

পাশাপাশি মাস্ক পরাসহ স্বাস্থ্যবিধি মানার তাগিদ দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা।


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply