শীতকালে গরম পানি দিয়ে গোসল হতে পারে মৃত্যু ও বন্ধ্যাত্বের কারণ

|

ছবি: সংগৃহীত।

শীতকালের অন্যতম এক বিড়ম্বনা হলো গোসল। তীব্র ঠাণ্ডায় পানির ধারেকাছেও ঘেঁষতে চান না অনেকে। তবে এর বিকল্পও বের করেছে মানুষ। শীত আসতে না আসতেই গোসল নিয়ে রীতিমতো যুদ্ধ শুরু হয় প্রায় প্রতিটি বাড়িতে। তবে এ সময় অনেকে হালকা গরম পানি দিয়ে দিব্যি গোসলের ঝামেলা মিটিয়ে নেন। অনেকের ধারণা, গরম পানি দিয়ে গোসল করলে তা অনেক দিক থেকেই শরীরের উপকার করে। তবে সায়েন্স ডিরেক্ট ওয়েবসাইটে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন বলছে, এই প্রবণতা বাড়াতে পারে মৃত্যু ঝুঁকিও।

এবারে চলুন জেনে নেয়া যাক, কেনো শীতকালে গরম পানি দিয়ে গোসল করলে মৃত্যু ঝুঁকির মতো পরিস্থিতি তৈরি হতে পারে-

১) শীতকালে আমাদের চারপাশের পরিবেশ ঠাণ্ডা থাকে। এরসাথে মানিয়ে নিতে শরীরও তাপ উৎপাদন করতে থাকে গরম থাকার জন্য। তবে প্রচণ্ড শীতে গরম পানি দিয়ে গোসল করলে হঠাৎ তাপমাত্রার উল্লেখযোগ্য তারতম্যের কারণে হার্টঅ্যাটাকের ঝুঁকি থাকে। এ কারণে যাদের হৃদরোগের সমস্যা আছে তাদের গরম পানি দিয়ে গোসল না করার পরামর্শ দেন বিশেষজ্ঞরা।

২) এছাড়া শীতকালে গরম পানি দিয়ে গোসলের সময় রক্তচাপও বেড়ে যায়। এই রক্তচাপকে স্বাভাবিক করতে হৃদযন্ত্রকে আরও বেশি দ্রুত কাজ করতে হয়। ফলে যাদের হৃদরোগের সমস্যা আছে, তাদের ক্ষেত্রে এটি আরও মারাত্মক আকার ধারণ করতে পারে।

৩) গরম পানি দিয়ে গোসলের সময় রক্তচাপ বেড়ে যাওয়ার কারণে আমাদের শরীরের কর্মক্ষমতাও কমে যায়। ফলে মাথা ঘোরা থেকে শুরু করে শরীর নিস্তেজ হয়ে পড়ে, গোসলের পর কোনো কাজে মনোনিবেশ করা যায় না।

৪) পুরুষদের ক্ষেত্রে লম্বা সময় ধরে গরম পানিতে গোসল করার ফলে সন্তান উৎপাদন ক্ষমতা করে যাওয়ার আশঙ্কা থাকে। এ ক্ষেত্রে স্পার্ম কাউন্ট কমে গিয়ে অনেক ক্ষেত্রে পুরুষের বন্ধ্যাত্বের কারণও হয়ে উঠতে পারে। তাই যেকোনো মৌসুমেই পুরুষদের স্বাভাবিক তাপমাত্রার পানিতেই গোসল করা উচিত।

৫) শীতকালে গরম পানি দিয়ে গোসলের ফলে চামড়ার আদ্রতা নষ্ট হয়ে ত্বক রুক্ষ হয়ে যায়। ফলে ত্বক ফাটা থেকে শুরু করে বিভিন্ন সমস্যা দেখা দিতে পারে।

তাই শীতকাল হোক বা গরমকাল, সবসময়ই স্বাভাবিক তাপমাত্রায় গোসলের চেষ্টা করতে হবে। বিশেষ করে শীতকালে প্রতিদিন গোসল করা সুস্থ্য থাকার ক্ষেত্রে খুবই জরুরি।


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply