কেড়ে নেয়া হলো স্মিথের অধিনায়কত্ব

|

Britain Cricket - England v Australia - 2017 ICC Champions Trophy Group A - Edgbaston - June 10, 2017 Australia's Captain Steve Smith looks dejected Action Images via Reuters / Paul Childs Livepic EDITORIAL USE ONLY.

অস্ট্রেলিয়া টেস্ট দলের অধিনাকত্ব কেড়ে নেয়া হলো স্টিভেন স্মিথের হাত থেকে। বল টেম্পারিং বিতর্কের মধ্যে আজ রোববার এ সিদ্ধান্তের কথা জানায় ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া। বোর্ডের প্রধান জেমস সাদারল্যান্ড আরো জানান, সহঅধিনায়ক পদ থেকে সরিয়ে দেয়া হয়েছে ওয়ার্নারকেও। দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে চতুর্থ টেস্টে দলকে নেতৃত্ব দেবেন উইকেটকিপার টিম পেইন।

এর আগে কেপ টাউন টেস্টের তৃতীয় দিনের খেলা শেষে বল টেম্পারিংয়ের চেষ্টার দায় স্বীকার করে নেন অস্ট্রেলিয়ান অধিনায়ক স্টিভেন স্মিথ ও ওপেনার ব্যানক্রফট।

এর প্রেক্ষিতে স্মিথকে অধিনায়কত্ব থেকে সরিয়ে দিতে দেশটির ক্রিকেট বোর্ডকে নির্দেশ দেন প্রধানমন্ত্রী ম্যালকম টার্নবুল। তিনি ঘটনাটিকে ‘অত্যন্ত দুঃখজনক’ বলে মন্তব্য করেন।

টার্নবুল বলেন, ‘সকালে ঘুম থেকে উঠে এই ভয়াবহ সংবাদ পেতে হলো। বিশ্বাসই হচ্ছিলো না যে অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট টিম প্রতারণায় জড়িত হয়েছে। যাইহোক আমাদের ক্রিকেটাররা রোল মডেল হিসেবে বিবেচিত এবং পরিচ্ছন্ন খেলা বলতে লোকজন এখানে ক্রিকেটকেই বুঝে। সবাই হতাশ হয়েছে।’

ঘটনা দক্ষিণ আফ্রিকা-অস্ট্রেলিয়ার চলতি কেপ টাউন টেস্টের তৃতীয় দিনে দ্বিতীয় সেশনের। টিভিতে ধরা পড়ে, হলুদ কাপড়ের মত কিছু একটা পকেট থেকে বের করেছিলেন ব্যানক্রফট। পরে সেটি লুকানোর চেষ্টা করেন তার ট্রাউজারের ভেতরে।

ওই ফুটেজ আলোচনার খোরাক জোগায় তখনই। সাবেক দক্ষিণ আফ্রিকা অধিনায়ক ও ধারাভাষ্যকার গ্রায়েম স্মিথ বলেন, বল বিকৃত করার জন্য ওই হলুদ কাপড়ের মতো টুকরাটি শিরীষ কাগজ হতে পারে। আম্পায়াররা অবশ্য তখনই ব্যানক্রফটের সঙ্গে কথা বলেন। তবে বলের অবস্থা পরিবর্তন হয়নি দেখে বল বদলাননি। ৫ রান পেনাল্টি দেওয়ার তাৎক্ষনিক শাস্তির পথেও হাঁটেননি।









Leave a reply