পঞ্চগড়ে ২ চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থকদের সংঘর্ষ, আহত দুই

|

পঞ্চগড় প্রতিনিধি:

পঞ্চগড় সদর উপজেলার হাফিজাবাদ ইউনিয়নে নৌকা ও লাঙ্গল মার্কার চেয়ারম্যান প্রার্থীদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। শনিবার (২৭ নভেম্বর) রাত আটটার দিকে হাফিজাবাদ ইউনিয়নের তালমা এলাকার দলুয়াপাড়া গ্রামে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন ওই ইউনিয়নের দলুয়াপাড়া গ্রামের শাহজাহানের ছেলে মো. সাগর (২০) এবং একই গ্রামের মো. মনতাজ আলীর পুত্র মো. লায়ন(২১)। আহত দুইজনই ছাত্রলীগের কর্মী বলে দাবী তাদের। এই ঘটনায় পঞ্চগড় সদর থানাব পুলিশ রুবেল নামে সাবেক ছাত্রলীগ নেতাকে আটক করে।

আরও পড়ুন: গাইবান্ধায় আগুনে পুড়ে ছাই ৪ দোকান

স্থানীয়রা জানান শনিবার রাত আটটার দিকে দলুয়াপাড়া গ্রামে লাঙ্গল প্রতীকের পক্ষে ওই ইউনিয়নের সাবেক ছাত্রলীগ নেতা রুবেল ও তার সমর্থকদের নিয়ে আইনুলের বাড়িতে ভোটের কাজে যায়। এদিকে তালমা বাজারে সাগর ও লায়ন নৌকা মার্কার নির্বাচনী অফিসে বসে ছিল। হঠাৎ তাদের কাছে খবর আসে লাঙ্গল মার্কার লোকজন গোপনে বাড়িতে বাড়িতে টাকা প্রদান করছে। এমন খবরে লায়ন ও সাগর দলুয়াপাড়া আইনুলের বাড়িতে যায়। সাথে সাথে দুই পক্ষের মধ্যে কথা কাটাকাটি শুরু হয়। একপর্যায়ে আইনুলের বাড়ির সামনে সংঘর্ষ বাধে। এ সময় লাঙ্গল প্রতীকের কর্মীরা লায়ন ও সাগরের মাথায় পায়ে ও মুখে ছুরিকাঘাত করে আহত করে।

পরে গুরুতর আহত অবস্থায় স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে নিয়ে আসে । এ সময় নৌকা প্রতীকের সমর্থক ছাত্রলীগ কর্মী লায়ন ও সাগরের অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় তাদের রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। দুই ছাত্রলীগ কর্মী আহতের ঘটনায় এলাকায় থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে।

পঞ্চগড় সদর থানার ওসি আব্দুল লতিফ মিঞা জানান দুই চেয়ারম্যান প্রার্থীর কর্মী সমর্থকের সংঘর্ষের ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আসে। এই ঘটনায় পুলিশ রুবেল নামে এক যুবককে আটক করে। এ ব্যপারে থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply